লকডাউন অমান্য করার জেরে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষ

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলায় লকডাউন অমান্য করে এক এলাকা থেকে অপর এলাকায় যাওয়াকে কেন্দ্র করে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সংঘর্ষে হৃদয় দাস (১৫) নামে এক কিশোর টেঁটাবিদ্ধসহ উভয়পক্ষের নয়জন আহত হয়েছে।

রোববার (১৯ এপ্রিল) সকালে উপজেলার নিমেরটেক ও হরিণা গ্রামবাসীর মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয়দের বরাত দিয়ে রূপগঞ্জের চনপাড়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মাহমুদুল ইসলাম জানান, শনিবার (১৮ এপ্রিল) বিকেলে উপজেলার নিমেরটেক এলাকার মুরাদ হোসেন ও তার কয়েকজন বন্ধু মিলে পাশ্ববর্তী হরিণা এলাকায় ঘুরতে যান। এ সময় লকডাউন অমান্য করে এক এলাকা থেকে অন্য এলাকায় যাওয়ায় হরিণা এলাকার মুন্না ও আলেক তাদের মারধর করেন।

তিনি জানান, শনিবার সন্ধ্যার দিকে হরিণা এলাকার কয়েকজন যুবক উপজেলার নিমেরটেক এলাকায় গেলে স্থানীয় কয়েকজন যুবক তাদের লাঞ্ছিত করেন। সকালে নিমেরটেক এলাকার কয়েকজন হরিণা এলাকায় ধান কাটতে গেলে ওই ঘটনার জেরে হরিণা এলাকার কয়েকজন যুবক তাদের ধাওয়া করেন। পরে নিমেরটেক এলাকার লোকজন খবর পেয়ে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে বের হয়। এ খবর হরিণা এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে স্থানীয় লোকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে বের হয়। একপর্যায়ে দুই গ্রামবাসী মুখোমুখি অবস্থান নেয়। পরে কয়েক দফা ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও ইটপাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে এক কিশোর টেঁটাবিদ্ধসহ উভয়পক্ষের নয় জন আহত হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদুল হাসান জানান, তুচ্ছ ঘটনায় এ সংঘর্ষে ঘটনা ঘটেছে। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।