লকডাউনে মানবেতর জীবনযাপন লেবানন প্রবাসীদের, দেখার কেউ নেই

মিলন খান, লেবাননঃ করোনা ভাইরাসের কারণে গত ১৬ মার্চ থেকে লেবানন লকডাউন, ২৯মার্চ পর্যন্ত চলার কথা থাকলেও পরিস্থিতি সাভাবিক না হওয়ার লকডাউনের মেয়াদ ১২ এপ্রিল পর্যন্ত বৃদ্ধি করা হয়। এরমধ্যেও প্রতিদিন বেড়ে চলছে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা, তৃতীয় দফায় বাড়ানো হতে পারে লকডাউনের মেয়াদ। বাংলাদেশী ৩জন আক্রন্ত হলেও এখনো পর্যন্ত কেউ মৃত্যু বরণ করেনি। এমন পরিস্থিতিতে আতংকে রয়েছেন প্রবাসীরা, পাশাপাশি জীবন-জীবিকা দুর্বিষহ হয়ে পরেছে নিন্ম আয়ের ও কর্মহীন প্রবাসীদের। যেন দেখার কেউ নেই।

বর্তমানে বিশ্বব্যাপী মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাসে বিশ্বের প্রায় সবকটি দেশেই চলছে লকডাউন। মধ্যপ্রাচ্যের দেশ লেবাননেও একই অবস্থা। এর ফলে অনেক প্রবাসী বাংলাদেশির এখন কাজ নেই। লেবাননের মাটিতে অনাহারে অর্ধাহারে মানবেতর দিন কাটাচ্ছেন গোল্ডেন বয় খ্যাত রেমিটেন্স যোদ্ধারা। বিশেষ করে লেবাননে ডলার সংকটের কারণে সরকার বিরোধি আন্দোলনের রেশ কাটতে না কাটতেই করোনা নামক আরেক আন্দোলন এসে হাজির। ডলার সংকটে দীর্ঘ আন্দোলনের ফলে অনেক প্রবাসী বাংলাদেশিরা কর্মহীন হয়ে পড়েছে। তার উপর আবার করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের কারণে আবার লকডাউন হয়ে পড়েছে দেশটি। এতে কর্মহীন হয়ে পরেছে হাজার হাজার প্রবাসী।

লেবাননে বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে দেখা গেছে, সরকার বিরোধী আন্দোলনের কারণে ও বর্তমানে করোনা ভাইরাসের (কোভিড-১৯) ফলে বিভিন্ন কোম্পানি, অফিস আদালত বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। অন্যদিকে বিমান চলাচল না থাকায় লেবানন সরকারের বিশেষ সুযোগে দেশে ফিরতে ইচ্ছুকরা দেশে ফিরতে না পেরে পরেছেন বিপাকে।

তারা দূতাবাসের প্রতি আকুল আবেদন করেন, তাদের প্রতি সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়ে তাদেরকে বাচিয়ে রাখতে অন্যথ্যায় নিজ মাতৃভূমিতে প্রেরণ করতে।