রায়হান কবিরের ১৩ দিনের রিমান্ড বাতিল আবেদন আপিলে ও বহাল আদালতের

আশরাফুল মামুন, মালয়েশিয়া প্রতিনিধি: মালয়েশিয়ার শ্রমিক ইস্যুতে আল জাজিরায় ইন্টারভিউ দিয়ে গ্রেফতার হওয়ার পর বাংলাদেশী রায়হান কবির কে ১৩ দিনের রিমান্ডে নেয় দেশটির পুলিশ।

এর আগে রিমান্ড বাতিল ও আদেশটি পূর্ণঃ পর্যালোচনা করার জন্য রায়হান কবিরের পক্ষে প্রতিনিধিত্বকারী ২ আইনজীবী ফজরিল সানী মোহাম্মদ ফাদজিল ও সি সেলভরাজ একটি আবেদন দাখিল করেছিলেন আদালতে। খবরঃ দেশটির রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা বারনামা।

আজ বৃহস্পতিবার (১৩ জুলাই) রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ও রায়হান এর আইনজীবী উভয়পক্ষের শুনানি শেষে বিচারক দাতোক আব করিম আব রহমান এই আদেশ বহাল রাখেন। এসময় বিচারক বলেন, আমার এই১৩ দিনের রিমান্ড আদেশ টি আবারও পর্যালোচনা করার কোন প্রয়োজন নেই বলে মনে করি কারন আদেশটি যৌক্তিক সময়োপযোগী।

রায়হানের আইনজীবী সেলভরাজ স্থানীয় সংবাদমাধ্যমে বলেন, আমার ক্লায়েন্ট রায়হান কে যে আগে ইমিগ্রেশন বিভাগ ১৪ দিনের হেফাজতে নিয়েছিল এটাই যথেষ্ট ছিল কিন্তু এরপরে আবার ১৩ দিনের রিমান্ডে নেওয়ায় আমরা তা বাতিলের আবেদন করেছি।

কারণ দেশের ইমিগ্রেশন আইন ১৯৫৯ এর ১৫(১) এর (গ) ধারা অনুযায়ী যখন কোন বিদেশি কে আটক করা হয় তখন ১৪ দিনের জন্য নেওয়া হয়। তিনি আরো বলেন, রায়হানের তদন্ত কর্মকর্তারা আবার ১৩ দিনের রিমান্ডে নেওয়ার কোন প্রয়োজনীয়তা বা যৌক্তিকতা নেই।

তাই আমরা আদালতে এ রিমান্ডের প্রতিবাদ জানিয়েছি। বিদেশী অভিবাসী শ্রমিকদের নিয়ে আল জাজিরা টেলিভিশনে কবির একটি ইন্টারভিউ দেওয়া কে কেন্দ্র করে তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করার পর কুয়ালালামপুর সেতাপাক এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে রিমান্ডে নেয়।