রায়পুরে সরকারি খাস জমি নিয়ে দুই গ্রুপ ভূমিদস্যুর সংঘর্ষ আহত ১০ আটক ৫

নুরুল আমিন দুলাল ভূঁইয়া, লক্ষ্মীপুর জেলা প্রতিনিধি:  লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে সরকারি খাস সম্পত্তির দখল নিয়ে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে আ’লীগ নেতা ও সাবেক স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতার বিবধমান দুই গ্রুপের সমর্থদের মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় উভয় পক্ষের লোকজন স্কুল ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ব্যাপক ভাংচুর ও লুটপাট চালায়। এ সময় সংঘর্ষে প্রায় ১০ জন আহত হয়েছে।

এবং গুরুত্বর জখম ৫ জনকে রায়পুর ও লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। বৃহস্পতিবার (১১ জুন) বিকেলে উপজেলার ৮নং চরবংশী ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের মিয়াঁরহাট বাজারে রাত পর্যন্ত দপায় দপায় এ ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষের সংবাদ পেয়ে ফাঁড়ি থানা পুলিশ ঘটনাস্থল গিয়ে অনেক কষ্টে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হন। এলাকাবাসির তথ্যমতে ভূমি দস্যু আওয়ামীলীগ নামধারি দাদন মোল্লা, মান্নান ও সোহেল নামে তিনজনকে ঘটনাস্থল থেকে আটক করে থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে।

আহতরা হলেন, আ’লীগ নেতা দাদন মোল্লা, স্বেচ্ছা সেবকলীগ নেতা শাহজালাল রাহুল, মোঃ ইউসুফ, মোঃ মনির, জলিল মিয়া, রুহুল আমীনসহ ১০ জন। ওই বাজারের দক্ষিণ চরকাচিয়া নিন্ম মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের কয়েকটি দরজা-জানালা, একটি ক্লাব ঘর, মোঃ আলতাফ, মোতালেব হোসেন, রব হাওলাদার, রাজা মুন্সি ও মোঃ বাবুলের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে তাঁরা সন্ত্রাসী কায়দায় ব্যাপক ভাংচুর চালায়। তথ্য অনুসন্ধানে ও কয়েকজন গ্রামবাসির সাথে এ বিষয়ে আলাপ কালে জানা যায়, ২০১২ সাল থেকে দলীয় সাইনবোর্ড ব্যবহার করে এই সব ভূমি দস্যুরা ভূমি হীনদের সরকারের দেয়া ভূমি তারা দখল করে নেয়।

এই দখল প্রক্রিয়ায় নিজদের আধিপত্য বিস্তারসহ তাঁরা কোন্দলে জড়িয়ে পড়ে। রায়পুর উপজেলার চরবংশী ইউপির মেঘনার তীরে চরের খাস জমি ও সয়াবিন নিয়ে ইউনিয়ন আ’লীগের সহ-সভাপতি দাদন মোল্লা ও সাবেক স্বেচ্ছাসেবকলীগ আহবায়ক শাহজালাল রাহুলের মধ্যে বিরোধ বিরোধ চলছে। এরই ধারাবাহিকতায় বিগত দিনে কয়েকবার উভয় পক্ষের মধ্যে হামলা ও একাধিক মামলা হয়েছে। একই বিরোধকে কেন্দ্র করে দীর্ঘদিন পর বাড়ী এসে শাহজালাল রাহুল তার দোকানে বসে আড্ডা দিচ্ছিলো। এ সময় দাদন মোল্লার সাথে রাহুলের তর্কবিতর্ক শুরু হলে এক পর্যায়ে উভয় পক্ষের লোকদের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয় এতে ১০ জন আহত হয়েছেন।

শৃষ্ট এ ঘটনায় আ’লীগ নেতা দাদন মোল্লা ও শাহজালাল রাহুল একে অপরের বিরুদ্ধে পরস্পর বিরোধী বক্তব্য দিয়েছেন। এলাকাবাসি জানায় এই ভূমি খেকো দস্যুরা অসাহায় ভূমিহীন গরীবদের জিম্মি করে তাঁরা ভূমিহীনদের সরকারের থেকে প্রাপ্য সম্পত্তি ক্ষমতা ও পেশীশক্তি বলে নিজেদের দখলে নেয়। নিরীহ ভূমিহীনরা এসব দস্যুদের হাত থেকে পরিত্রানের জন্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন। শৃষ্ট ঘটনা সম্পর্কে জানতে চাইলে রায়পুর চরবংশী হাজিমারা ফাঁড়ি থানার ওসি পরিদর্শক আবুল কালাম আজাদ বলেন, সংবাদ শুনে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করা হয়েছে। দু’পক্ষের-তিনজনকে আটক করা হয়েছে। অভিযোগের ভিত্তিতে আইনের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।