রাজীবপুরে ইয়াবার প্রতিবাদ করায় প্রাণনাশের চেষ্টা! প্রতিবাদে বিক্ষুদ্ধ জনতার মানববন্ধন

রফিকুল ইসলাম, রাজিবপুর (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি: কুড়িগ্রামের রাজীবপুরে ইয়াবা কারবারির প্রতিবাদ করায় আনোয়ার হোসেন (৩৫) নামের এক পল্লী চিকিৎসককে পরিকল্পিত ভাবে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টার ঘটনা ঘটিয়েছে এলাকার চিহ্নিত তিন ইয়াবাকারবারি।

এ ঘটনার প্রতিবাদে বিক্ষুদ্ধ হয়ে উঠছে এলাকাবাসি। অভিযুক্ত ওই ইয়াবাকারবারিদের গ্রেপ্তারের দাবিতে গতকাল শনিবার কোদালকাটি বাজারে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করেছে এলাকবাসি। বেপরোয়া ওই মহলের অতিষ্টে সর্বস্তরের জনগণ মানববন্ধন করে। মানববন্ধন কর্মসূচীতে বক্তব্য রাখেন, কোদালকাটি ইউপি চেয়ারম্যান আ’লীগ নেতা হুমায়ুন কবির ছক্কু, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম যোদ্দার, আ’লীগ নেতা ও ইউপি সদস্য ফরিদুল ইসলাম, শিক্ষক রোস্তম আলী ও আব্দুস সামাদ সরকার প্রমুখ।

বক্তরা দ্রুত ইয়াবা কারবারি সন্ত্রাসীদের গ্রেপ্তারের দাবি জানান যে, এলাকার চিহ্নিত ইয়াবাকারবারি মিলন মিয়া (২৮), জবেদুল ইসলাম (২২) ও ফরিদ উদ্দিন (২৫) তিনজনে মিলে ওই পল্লী চিকিৎসককে এলোপাথারি ভাবে দেশীয় অত্র দা, ছুরি দিয়ে কুপিয়ে ক্ষতবিক্ষত করে রাস্তার পাশে ফেলে রাখে তাকে। পরে স্থানীয়রা আশংকাজনক অবস্থায় আহতকে প্রথমে রাজীবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে তার অবস্থার অবনতি ঘটলে তাকে দ্রুত রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

আহত আনোয়ার হোসেনের অপরাধ ছিল সে বাজারে ইয়াবা কারবারির প্রতিবাদ মূলক কথা বলেছিল। মঙ্গলবার কোদালকাটি জাফরের মোড় নামক স্থানে মিলনের মুদির দোকানের সামনে ওই ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় রাজীবপুর থানায় ওই তিন ইয়াবা ব্যবসায়িকে অভিযুক্ত করে মামলা দায়ের করা হয়েছে। আহত আনোয়ার হোসেন কোদালকাটি মধ্যচরসাজাই গ্রামের তাইজ উদ্দিনের পুত্র। এ ব্যাপারে রাজীবপুর থানার অফিসার ইনর্চাজ (ওসি) গোলাম মোর্শেদ তালুকদার জানান, ওই ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।