রাজিবপুরে বাড়ীতে আগুন, সন্দেহের তীর প্রতিপক্ষ

রফিকুল ইসলাম, রাজিবপুর, কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি : কুড়িগ্রামের রাজিবপুর উপজেলায় জমি-জমার বিরোধে প্রতিপক্ষের লাগানো আগুনে গরমু পুড়িয়ে মারার অভিযোগ পাওয়া গেছে। বুধবার দিবাগত রাতে সদর ইউনিয়নের জাউনিয়ারচর জালচিরাপাড়ার দিনমজুর মজিবর রহমানের বাড়ির গোয়াল ঘরে রাখা একটি গর্ভবতী গাভি ও একটি বকনা বাছুরসহ গোয়ালঘর এবং রান্নাঘর পুড়ে ছাই হয়েছে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, ভুক্তভোগি মজিবুরের তিন লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে। থানায় লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে জানা যায়, একই গ্রামের শফি আলমের সাথে বেশ কিছুদিন থেকে মজিবর রহমানের জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলছিল। জমি সংক্রান্ত বিরোধে মামলাও চলমান। প্রতিপক্ষের আসামীরা জামিনে বেরিয়ে এসে বুধবার সকালে মজিরব রহমানকে বিভিন্ন ভাবে হুমকি দিয়েছে মামলা তুলে নেওয়ার জন্য। মামলা তুলে না নেওয়ায় বুধবার দিবাগত রাতে পরিকল্পিত ভাবে মজিবর রহমানের গোয়াল ঘরে আগুন দেয় প্রতিপক্ষ।

এ সময় ভূক্তভোগির চিৎকারে প্রতিবেশিরা এগিয়ে আসলেও আগুন নেভাতে ব্যর্থ হয়। আগুনে একটি গর্ভবতী গাভি, একটি বকনা বাছুর, গোয়াল ঘর এবং একটি রান্না ঘর সম্পূর্ণভাবে পুড়ে যায়। ১১ জুন বৃহস্পতিবার মজিবর রহমান বাদী হয়ে, শফি আলম (৫০), গোলাম হোসেন (৪৬), মোঃ শফি (৪০), রাসেল মিয়া (২০), নুরুল আমিন (২৪) এবং মোতাহার আলীর নাম উল্লেখ করে রাজিবপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দাখিল করে। এ বিষয়ে অভিযুক্তদের বাড়ীতে গিয়ে আসামীদের হদিস মেলেনি।

পাড়া প্রতিবেশীদের জিজ্ঞাসাবাদে অনেকেই জানিয়েছেন, আগুন লাগা ঘরের পাশে টিউবওয়েলের হাতল ছিল না, সন্ধেহ আছে। তবে কে বা কারা আগুন দিয়েছে কেউই জানেন না। লিখিত অভিযোগ পাওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করে রাজীবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) গোলাম মোর্শেদ তালুকদার বলেন, বিষয়টি সরেজমিন তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।