রাজশাহী জেলায় একদিনে বেড়েছে ২০ আক্রান্ত

সৈয়দ মাসুদ, রাজশাহী প্রতিনিধি: রাজশাহী জেলায় একদিনে করোনাভাইরাসে সংক্রমিত বেড়েছে ২০ জন। এ নিয়ে জেলায় সংক্রমিত বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৭৬ জনে। আর সুস্থ্য হয়েছেন ৫২ জন। এখন পর্যন্ত মারা গেছেন তিনজন।

বৃহস্পতিবার ১৮জুন রাজশাহী সিভিল সার্জন ডা. এনামুল হক এ তথ্য জানিয়েছেন। ডা. এনামুল হক জানান, গত ২৪ ঘন্টায় রাজশাহী জেলায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে ২০ জন। রাজশাহীর দুইটি ল্যাবে তাদের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এ মধ্যে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের ল্যাবে ১৮ জন ও রামেক ল্যাবে দুইজনের নমুনা পজিটিভ আসে।

নতুন আক্রান্তরা হলেন, রামেক হাসপাতালে ২৯ নং ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন শুমেল (৩০), মিশন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন শিবগঞ্জের রাসেদুল ইসলাম (৪০), নগরের ২৩ নং ওয়ার্ডের ফরিদা ইয়াসমিন জলি (৪৭), মিশন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মামুনুর রশিদ (৩৯), পুলিশ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন হুমায়ন কবির (৪৯), ও হামিদুল ইসলাম (৩০)।

এছাড়াও নগরের ১৩ নং ওয়ার্ডের সাফিয়া বেগম (৬৫), ফারজানা আতিকা (১৫), কামরুজ্জামান খান (৫০), ১৪ নং ওয়ার্ডের আহমেদ আলি মোল্লা (৭০), ১৯ নং ওয়ার্ডের নজরুল ইসলাম (৩৮), পবা উপজেলার অনু (২২), হাসিবুর (২৩), দুর্গাপুরের রেজাউল (১৮), পুঠিয়ার রুনা (২৭), মোহনপুর উপজেলার নয়ন (৩৭), মুস্তাকিন (৪০), মশিউর (২৮) এবং রামেক হাসপাতালে ভর্তি আলফাজ হোসেন (৩৫) ও জাহানারা বেগম (৫০)।

তিনি বলেন, রাজশাহীতে করোনায় আক্রান্তদের মধ্যে সবচেয়ে বেশী নগরে ৬৯ জন। এ ছাড়াও বাঘায় ১২ জন, চারঘাটে ১৪ জন, পুঠিয়ায় ১২ জন, দুর্গাপুর ৬ জন, বাগমারায় ১২ জন, মোহনপুরে ২১ জন, তানোরে ১৭ জন, পবায় ১২ জন ও গোদাগাড়ীতে একজন। গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ্য হয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরেছেন আরও তিনজন। এ নিয়ে মোট সুস্থ্য হয়েছেন ৫২ জন।

এর মধ্যে নগরের আটজন, বাঘায় তিনজন, চারঘাটে দুইজন, পুঠিয়ায় নয়জন, দুর্গাপুরে তিনজন, বাগমারায় পাঁচজন, মোহনপুরে পাঁচজন, তানোরে ১২ জন ও পবায় চারজন। ১ মার্চ থেকে এ পর্যন্ত কোয়ারেন্টিনে নেয়া হয়েছে এক হাজার ৯৬৭ জন। ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে এক হাজার ৯৪৬ জনকে। বর্তমানে কোয়ারেন্টিনে রয়েছেন ২১ জন। তবে গত ২৪ ঘন্টায় কাউকে কোয়ারেন্টিনে নেয়া হয়নি।