রাজশাহীর রাজপাড়ায় মেয়েকে ধর্ষণ মামলায় বাবার মৃত্যুদণ্ড

রাজশাহীর রাজপাড়ায় গলায় ছুরি ধরে মেয়েকে ধর্ষণ মামলায় বাবার মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত।

সোমবার (২২ মার্চ) দুপুর ১টার দিকে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক মনসুর আলম এ রায় ঘোষণা করেন।

এ সময় দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি নজরুল ইসলাম (৫০) কাঠগড়ায় উপস্থিত ছিলেন। তিনি রাজশাহী নগরীর রাজপাড়া থানার বাজে শিলিন্দা এলাকার মৃত খবির উদ্দিনের ছেলে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, ২০১৮ সালের ১৪ মে ভোরে নজরুল ইসলামের স্ত্রী একটি ছাত্রাবাসে রান্নার কাজ করছিলেন।

ওই সময় তার কিশোরী মেয়ে ঘরে ঘুমিয়ে ছিল। এসময় নজরুল ইসলাম ঘরে ঢুকে মেয়ের গলায় ছুরি ধরে তাকে ধর্ষণ করেন।

এসময় ঘটনা প্রকাশ করলে মেয়েকে হত্যারও হুমকি দেন নজরুল ইসলাম। ঘটনার পর পরই নজরুল পালিয়ে যান।

পরে মেয়েটি অসুস্থ হলে চিকিৎসকের পরামর্শে আলট্রাসনোগ্রাম করা হয়। এতে মেয়েটি গর্ভবতী বলে রিপোর্ট আসে।

ওই বছরের ২২ নভেম্বর মেয়েটি টিউবয়েলের পানি তুলতে গিয়ে পা পিছলে পড়ে গেলে তার গর্ভপাত হয়।

পরে ২০১৯ সালের ১৬ ফেব্রুয়ারি মেয়েটির মা বাদী হয়ে নজরুল ইসলামকে আসামি করে রাজপাড়া থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট রাশেদ ঊন নবী আহসান জানান, মামলার তদন্তে নজরুলের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে।

এছাড়া জবানবন্দিতেও ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছেন তিনি।

তবে আসামিপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট শফিকুল ইসলাম বাবু বলেন, মামলার এজাহারে মেয়েটি গর্ভবতী হওয়ার অভিযোগ তোলা হয়েছে।

কিন্তু ডিএনএ টেস্ট করা হয়নি। এ রায়ের বিরুদ্ধে তারা উচ্চ আদালতে আপিল করবেন।