রাজবাড়ী পাংশায় শেষ মুহূর্তে জমে উঠতে শুরু করেছে পশুর হাট গুলো

মোঃ শাহিন রেজা, রাজবাড়ী জেলা প্রতিনিধি: জমে উঠতে শুরু করেছে রাজবাড়ী পাংশা উপজেলার পশুর হাট। ঈদের আর মাত্র দুইদিন বাকি আর এই কারণেই হাটগুলোতে দেখা গিয়েছে ক্রেতা-বিক্রেতার ভিড় কিন্তু ক্রেতা-বিক্রেতার ভিড় দেখা গেলেও কোরবানির পশু ক্রয় বিক্রয় হচ্ছে কম।

গরুর ব্যাপারী মোঃ আবুল কাশেম বলেন, করোনার ভাইরাসের কারণে গত বছরের থেকে এই বছর গরুর দাম অনেক কম এবং ক্রেতার উপস্থিতি কম দেখা গেছে হাটে। আর যারা কোরবানির পশু ক্রয়ের জন্য হাটে এসেছে তারা এক লক্ষ টাকার গরুর দাম হাজার টাকা বলে।

আমার একটি গরু ৬ থেকে ৭ মন মাংস হবে সেই গরুর দাম হচ্ছে ৮৫ হাজার টাকা। ক্রেতা মোহাম্মদ মান্নান বলেন, আমি একটি গরু কিনেছি ৬৬ হাজার টাকা দিয়ে তিন থেকে সাড়ে তিন মণ মাংস হবে। সবাই বলছে এবারে গরুর দাম নাকি অনেক কম কিন্তু এখন হাটে এসে আমার মনে হচ্ছে গরুর দাম গত বছরের মতনই রয়েছে। ইজারাদার মোহাম্মদ শাহাদাত হোসেন ও মোঃ সুরাপ মন্ডল বলেন, আমাদের হাট করোনা ভাইরাসের কারণে দীর্ঘ চার মাস বন্ধ থাকার পর আবারও নতুন করে কোরবানির ঈদ উপলক্ষে চালু হয়েছে।

আমরা সরকারি নির্দেশনা মেনে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে হাটে পশু ক্রয় বিক্রয় করছি। এবং হাটে প্রবেশের আগে হাত ধোয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে ও মুখে মাক্স পড়ার হাটে প্রবেশ করার অনুরোধ করছি। এছাড়াও হাটে কোন বিশৃংখলা সৃষ্টি না হয় এজন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনী আমাদের সহযোগিতা করছে ও জাল টাকা শনাক্ত করার জন্য মেশিন রয়েছে।