রাজবাড়ীতে বিআরটিসি, সোহার্দ্য ও লোকাল বাসগুলোর বিরুদ্ধে অতিরিক্ত ভাড়া নেওয়ার অভিযোগ

মোঃ শাহিন রেজা, রাজবাড়ী প্রতিনিধিঃ রাজবাড়ীতে কাউন্টারের সামনে বাস থামিয়ে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের ও ভাড়া বেশি দেওয়া না হলে যাত্রীদেরকে দেওয়া হচ্ছে না টিকেট এ সমস্ত অভিযোগ উঠেছে বিআরটিসি,সোহার্দ্য, রোজিনা,রাবেয়া, লালন পরিবহন সহ রাজবাড়ী ও কুষ্টিয়া মহাসড়কের চলাচল কৃত লোকাল বাস কাউন্টার গুলোর বিরুদ্ধে।

গণপরিবহন চলাচলের ক্ষেত্রে সরকারি নির্দেশনায় বলা হয়েছে আসন সংখ্যার অর্ধেকের বেশি যাত্রী উঠানো যাবে না ও চার্ট দেখিয়ে ভাড়া নেওয়া সহ নানা নির্দেশনার কথা বলা হলেও এসব সরকারি নিয়ম-নীতির কথা পরোয়া না করে গাদাগাদি করে যাত্রী উঠানো হচ্ছে রাজবাড়ী থেকে ছেড়ে যাওয়া বিভিন্ন রুটে দূরপাল্লার বাস ও রাজবাড়ী কুষ্টিয়ার মহাসড়কের লোকাল বাস গুলোতে মানা হচ্ছে না সামাজিক দূরত্ব এবং যাত্রীদের কাছ থেকে ডবল সিটের ভাড়া নেওয়া হলেও দেওয়া হচ্ছে সিঙ্গেল সিট। এছাড়াও বিআরটিসি ও লোকাল বাস গুলাতে যাত্রীদের দাঁড়িয়ে ও ইঞ্জিন কভারে বসে যেতে দেখা গিয়েছে।

রাজবাড়ী পাংশা থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে যে বাস গুলা ছেড়ে যাচ্ছে সেই সমস্ত বাস গুলার যাত্রীদের কাছ থেকে ৫০০ টাকার ভাড়া ৮০০ টাকা নেওয়া হচ্ছে এবং যে সমস্ত বিআরটিসি বাস পাংশা থেকে বরিশালের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাচ্ছে এই বাস গুলার যাত্রীদের কাছ থেকে ৬০০ টাকার ভাড়া ১ হাজার টাকা

এসময় বাসের যাত্রীরা বলেন, আমাদের কাছ থেকে ডবল ভাড়া নেওয়া হচ্ছে দেওয়া হচ্ছে সিঙ্গেল সিট এবং অনেক যাত্রী আছে টিকিট কেটে দাঁড়িয়ে যেতে হচ্ছে এবং ইঞ্জিন করে বসে যেতে হচ্ছে।

এসময়ে বাস মালিক কর্তৃপক্ষ এইসব বিষয়ে ক্যামেরার সামনে কথা বলতে রাজি হয়নি।