রাজধানীতে সাড়ে ৩ হাজার মাদক ব্যবসায়ী চিহ্নিত: মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর

রাজধানী ঢাকায় সাড়ে তিন হাজার মাদক কারবারী রয়েছে বলে জানিয়েছেন মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর।

তালিকাভুক্ত এই মাদক ব্যবসায়ীদের মধ্যে গডফাদার রয়েছেন শতাধিক।

এই তালিকা ধরে ধরে গ্রেপ্তার অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের ঢাকা বিভাগের প্রধান ও অতিরিক্ত পরিচালক ফজলুর রহমান।

আজ দুপুরে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের ঢাকা মেট্রো উত্তরের কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানিয়েছেন।

ফজলুর রহমান বলেন, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর এর আগেও মাদক কারবারীদের তালিকা তৈরি করেছিল।

দুই মাস আগে পূর্বের তালিকা হালনাগাদ করা হয়েছে। আমরা ঢাকা বিভাগের মাদক কারবারিদের গ্রেপ্তারে প্রতিনিয়ত অভিযান পরিচালনা করছি।

সম্প্রতি মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের বিভিন্ন অভিযান পরিচালনার জন্য লোকবল ও লজিস্টিক সাপোর্ট কিছুটা বেড়েছে বলেও উল্লেখ করেন ফজলুর রহমান।

সংবাদ সম্মেলনে ফজলুর রহমান বলেন, তালিকাভুক্ত মাদক ব্যবসায়ী ছাড়াও খুচরা ও মাদকসেবীদের আলাদা তালিকা করা হয়েছে।

অধিদপ্তর চেষ্টা করছে মাদকের গড ফাদারদের আইনের আওতায় নিয়ে আসার। অনেকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তৎপরতার কারণে ব্যবসা ছেড়ে দিলেও এখন পৃষ্টপোষকতা করছেন।

কেউবা নিজে সরাসরি না জড়িয়ে লগ্নি করে অন্যদের দিয়ে ব্যবসা পরিচালনা করছেন।

তিনি বলেন, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন অনুযায়ী কোনো মাদকসেবী বা কারবারীকে আইনের আওতায় আনতে হলে তার কাছে থাকা মাদকদ্রব্য জব্দ করতে হয়।

সাধারণত মাদকের গড ফাদারদের আইনের আওতায় নিয়ে আসা বা গ্রেপ্তার করা কঠিন হয়ে যায়।

কারণ মাদক থাকে নিচের দিকের খুচরা কারবারীদের কাছে। আমরা চেষ্টা করে যাচ্ছি হাতেনাতে ধরার জন্য।

সম্প্রতি মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের বিভিন্ন অভিযান পরিচালনার জন্য লোকবল ও লজিস্টিক সাপোর্ট কিছুটা বেড়েছে বলেও উল্লেখ করেন ফজলুর রহমান।