রাজধানীতে বন্দুক যুদ্ধে ডাকাত দলের মূলহোতা টিটু নিহত

মোস্তাফিজ রুমন :

রাজধানীর মোহাম্মদপুরের বিল্লাহ্ ফার্মা ও খিলগাঁওয়ের লাজ ফার্মায় ডাকাতির ঘটনার মূলহোতা মোঃ আলী হোসেন টিটু (৩০) বন্দুক যুদ্ধে নিহত হয়েছেন।এ ঘটনায় ডিবি পুলিশের একজন এএসআই ও দুইজন কনস্টবল সহ তিনজন আহত হয়েছেন।

সোমবার দিবাগত রাত পৌনে বারটার দিকে রাজধানীর বছিলা এলাকায়  ডিবি পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধের এ ঘটনা ঘটে। ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিসি) মিডিয়া মো: মাসুদুর রহমান আজ মঙ্গলবার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, গত ১ এপ্রিল মধ্যরাতে রাজধানীর মোহাম্মদপুরের কলেজ গেইটে বিল্লাহ ফার্মা ও ৫ এপ্রিল রাত সাড়ে ১০টায় খিলগাঁওয়ের লাজ ফার্মায় একই কায়দায় ডাকাতির ঘটনা ঘটে। এই দুটি ডাকাতির ঘটনায় গোয়েন্দা পশ্চিম বিভাগের মোহাম্মদপুর জোনাল টিমের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার মোঃ আনিচ উদ্দীন এর নেতৃত্বে গত ১২ এপ্রিল রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ৫ জনকে গ্রেফতার করে একটি দল। তাদের দেয়া তথ্যমতে গত ১৩ এপ্রিল রাত পৌনে বারটায় বছিলা এলাকায় অভিযান যায় গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল। তখন পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে তারা প্রথমে গুলি করতে শুরু করে। পুলিশ ও আত্নরক্ষার্থে পাল্টা গুলি করে। ঘটনার পর পুলিশ ঘটনাস্থলে একজনকে রক্তাক্ত জখম অবস্থায় পায়। পুলিশ তাকে সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পরবর্তী সময়ে জানা যায় নিহত ওই ব্যক্তির নাম আলী হোসেন টিটু। পুলিশের এই কর্মকর্তা আরও বলেন, এ ঘটনায় ডিবি পুলিশের একজন এএসআই ও দুইজন কনস্টবল আহত হয়েছেন। যাঁরা কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ১টি রিভলবার ও ১টি চাকু উদ্ধার করেছে।

উল্লেখ্য যে, গত ১২ এপ্রিল ডাকাতির সাথে যুক্ত থাকার অভিযোগে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে সোহেল (২৮), মোঃ আক্তার হোসেন ওরফে সোহরাব (২২), মোঃ নেওয়াজ (২৪), মোঃ শাওন হোসেন ওরফে শাহীন (২০) ও মেহেদী হাসান ওরফে রাজু (২২) নামের পাঁচ জনকে গ্রেফতার করে ডিএমপির গোয়েন্দা পশ্চিম বিভাগের মোহাম্মদপুর জোনাল টিম। আর তাদের হেফাজত থেকে উদ্ধার করে ডাকাতি কাজে ব্যবহৃত পিক আপ, চাপাতি, দা, লোহার রড ও নগদ ৫ হাজার টাকা।