যেভাবে ছিনতাই করা হয় ১৬ লাখ টাকা

মোঃ রাশেদ, চট্টগ্রাম প্রতিনিধিঃ ব্যাংকের সামনে অপেক্ষা, ফিল্মি কায়দায় টাকা ছিনতাই ব্যাংকের সামনে ঘণ্টার পর ঘণ্টা অপেক্ষা। এরপর লাখ টাকা উত্তোলনকারী গ্রাহককে টার্গেট করে নাটকীয় কায়দায় মোটরবাইকে ছিনতাই করছে একটি চক্র।

সিসিটিভি ফুটেজের সূত্র ধরে চট্টগ্রামে ছয়জনকে গ্রেফতারের পর এ তথ্য জানিয়েছে পুলিশ। তাদের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয় ছিনতাইয়ে ব্যবহৃত অস্ত্র-গুলি ও দুটি মোটর সাইকেল। সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যায়, গত ১৬ জুন নাসিরাবাদ এক্সিম ব্যাংকের সামনে ঘোরাফেরা করছিল কয়েকজন যুবক। এ সময় দুটি মোটরসাইকেল বার বার ব্যাংকের আশেপাশে ঘুরছিল।

আবার ফুটপাত দিয়ে সাধারণ মানুষের বেশে হাঁটা চলাও করছিল তারা। মূলত ছদ্মবেশে বিভিন্ন ব্যাংকের সামনে ঘোরাফেরা করে সংঘবদ্ধ ডাকাত চক্রটি। এ সময় টার্গেট করা ব্যক্তিকে অনুসরণ করে তারা। ব্যাংক থেকে কেউ টাকা নিয়ে বের হলেই তাকে টার্গেট করে সুযোগ বুঝে টাকা হাতিয়ে নেয়। এ সময় ফারুক নামে এক ব্যক্তি ব্যাংক থেকে ৫ লাখ টাকা তুলে বের হয়ে আসেন। দুপুর একটায় বন্দর এলাকায় যাওয়ার জন্য সিএনজি অটোরিকশা ঠিক করলে পিছু নেয় সংঘবদ্ধ ডাকাত দলের চক্রটি।

কোতয়ালী থানাধীন জমিয়াতুল ফালাহ পশ্চিম গেইটে আসলে দুই মোটর সাইকেল সিএনজির গতিরোধ করে। অনেকেটা ফিল্মি কায়দায় এ সময় ৫ লাখ টাকা নিয়ে পালিয়ে যায় তারা। সিএমপি কোতয়ালী থানা ওসি মো. মহসিন বলেন, চক্রটিতে ৭ জন ছিলো তার মধ্যে ৬ জনকে আটক করেছি। এই চক্রের ব্যবহৃত ২টি মোটর সাইকেলও উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছি।

সিসিটিভি ফুটেজের সূত্র ধরে তদন্তে নামে পুলিশ। ব্যাংকসহ আশপাশের বিভিন্ন এলাকার সিসিটিভি ফুটেজের মাধ্যমে অনুসন্ধান শুরু হয়। পরে শনিবার ভোররাতে কর্ণফুলী ও ওয়াসার মোড়ে অভিযান চালিয়ে সংঘবদ্ধ চক্রটিকে গ্রেফতার করে। এ ঘটনায় ডাকাতির মামলা করে ভুক্তভোগী ফারুক। শুধু এ ঘটনা নয়, নগরীর বিভিন্ন থানায় গ্রেফতারকৃত আসামীদের নামে বেশ কয়েকটি চাঁদাবাজি ও ডাকাতি মামলা রয়েছে।