যুক্তরাষ্ট্রে করোনা ভ্যাকসিনের পরীক্ষামূলক প্রয়োগ

প্রথমবারের মতো করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন বা প্রতিষেধক মানুষের শরীরে পরীক্ষামূলক ভাবে প্রয়োগ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। ওয়াশিংটন স্টেটের সিয়াটলের কাইসের পারমানেন্ট রিসার্চ ইনস্টিটিউটে চার রোগীর শরীরে এই ভ্যাকসিন দেয়া হয়।

এই ভ্যাকসিন কার্যক্রমের যাবতীয় ব্যয়ভার বহন করছে যুক্তরাষ্ট্রের দ্য ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব হেলথ-এনআইএইচ।

ইনস্টিটিউটের গবেষকরা এর ইতিবাচক ফল পাওয়ার আশা করলেও কবে নাগাদ পাওয়া যাবে তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। পরীক্ষা সফল হলেও সব দিক খতিয়ে দেখে বাজারে এই প্রতিষেধক আনতে অন্তত এক বছর থেকে দেড় বছর সময় লাগতে পারে বলে ধারণা গবেষকদের।

আন্তর্জাতিক সংবাদ সংস্থা এএফপি জানায়, প্রথম স্বেচ্ছাসেবক তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থার একজন কর্মী। প্রায় অর্ধশত মানুষের ওপর মোট দু’টি ডোজ পরীক্ষামূলক ভাবে প্রয়োগ করা হবে।