ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের বিপক্ষে ২-০ গোলে জয় লিভারপুলের

ইংলিশ লিগের হাইভোল্টেজ ম্যাচে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে ২-০ গোলে হারিয়ে লিগ শিরোপার পথে আরো একধাপ এগিয়ে গেলো লিভারপুল।
লিভারপুল-ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড মানেই হলো মর্যাদার লড়াই। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের এই দুই পরাশক্তির লড়াইটা ঐতিহাসিক। তেমন এক হাইভোল্টেজ ম্যাচে পুরনো শত্রু ইউনাইটেডকে হারিয়ে চলতি মৌসুমে অপরাজিত থাকার অভিযান অব্যাহত রাখলো লিভারপুল।
প্রিমিয়ার লিগে ৩০ বছরের শিরোপা খরা কাটানোর পথে অদম্য গতিতে ছুটতে থাকা লিভারপুল ম্যাচের শুরু থেকে আক্রমণ চালাতে থাকে ইউনাইটেডের ‍ওপর। গোলের জন্য বেশিক্ষণ অপেক্ষাও করতে হয়নি তাদের। ১৪ মিনিটে ট্রেন্ট আলেক্সান্দার-আর্নল্ডের কর্নার-কিক থেকে হেডে গোলরক্ষক ডেভিড ডি গিয়াকে পরাস্ত করেন অল রেডদের ডাচ ডিফেন্ডার ভার্জিল ফন ডাইক।
গোল হজম করে ঘুরে দাঁড়াতে চেষ্টা করে ইউনাইটেড। অ্যান্থলি মার্শাল-ড্যানিয়েল জেমসরা বার কয়েক আক্রমণে ওঠে ভয় ধরিয়ে দিয়েছিল অ্যানফিল্ডের দর্শকদের। কিন্তু পুরো সময় ধরে ফন ডাইক-রবার্টসনদের দেয়াল ভাঙতে পারেনি তারা।
এমনিতে হার চোখ রাঙাচ্ছিল সুলশারের শিষ্যদের। তার মধ্যে ম্যাচের অন্তিম মুহুর্তে উল্টো গোল হজম করে বসে তারা। দ্বিতীয়ার্ধের যোগ করা সময়ে সমতায় ফিরতে গোলরক্ষক ডি গিয়া-সহ ইউনাইটেডের সবাই চলে আসে লিভারপুলের ডি-বক্সে। সেই সুযোগে গোলরক্ষক অ্যালিসনের কাছ থেকে বল পেয়ে তা প্রতিপক্ষের জালে পাঠিয়ে জার্সি খুলে গোল উদযাপনের বুনো উল্লাসে মেতে ওঠেন মোহামেদ সালাহ।
এই জয়ে প্রিমিয়ার লিগের পয়েন্ট তালিকার শীর্ষস্থান অটুট রেখেছে লিভারপুল। দ্বিতীয়স্থানে থাকা ম্যানচেস্টার সিটির সঙ্গে তাদের পয়েন্ট ব্যবধান দাঁড়িয়েছে ১৬। ২২ ম্যাচে ৬৪ পয়েন্ট নিয়ে সিংহাসনে অল রেডরা। এক ম্যাচ বেশি খেলে ৪৮ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে আছে পেপ গার্দিওলার দল।