মিয়ানমার সেনাবাহিনীকে চাল পাঠানোর কথা অস্বীকার থাই বাহিনীর

মিয়ানমার সেনাবাহিনীকে ৭০০ বস্তা চাল দিয়েছে থাইল্যান্ডের সেনাবাহিনী। থাই সরকারের নির্দেশে মিয়ানমারে ওই চাল পাঠানো হয়েছে বলে জানা গেছে।

যদিও থাই সেনারা এই কথার সত্যতা অস্বীকার করেছে। গতকাল থাই সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে বলা হয়েছে যে, সীমান্ত দিয়ে যদি কোন চাল পাঠানো হয় সেটা ব্যবসার অংশ হিসেবে পাঠানো হয়েছে।

থাইল্যান্ড সেনাবাহিনী নারেসুয়ান কমান্ডার মেজর জেনারেল আমনাত শ্রীমাক এক বিবৃতিতে বলেন, থাই সেনাবাহিনী মিয়ানমার সেনাবাহিনীকে চাল পাঠাচ্ছে না।

সহায়তা চেয়ে মিয়ানমার সেনাবাহিনী কোনো যোগাযোগ করেনি। তারা আমাদের কাছ থেকে কোনো সহায়তা চায়নি কারণ তাদের নিজেদের আত্মসম্মান আছে।

থাই জেনারেল বলেন, যদি আইন এবং বিধি বিধানের বাইরে কোনো কিছু না হয়ে থাকে তাহলে আমরা এটা বন্ধ করবো না।

মিয়ানমারে গত ১লা ফেব্রুয়ারি সেনা অভ্যুত্থানের মাধ্যমে জোর পূর্বক ক্ষমতা দখল করে নেয়। নির্বাচিত প্রতিনিধিদের আটক করে।

নোবেল বিজয়ী নেত্রী অং সান সু চিকেও আটক করে। আগামী এক বছরের জন্য জরুরি অবস্থা জারি করেছে। স্বৈরশাসনের বিরুদ্ধে মিয়ানমারের সাধারণ মানুষ বিক্ষোভ করছে।

বিক্ষোভে সেনাবাহিনী নির্বিচারে গুলি চালাচ্ছে। জাতিসংঘ এবং বিশ্বনেতারা এই নির্যাতন বন্ধে সেনাবাহিনীকে

সতর্ক করেছে। নির্বাচিত প্রতিনিধিদের কাছের ক্ষমতা হস্তান্তরের আহবান জানিয়েছে।