মিরাজ-তাইজুল-নাঈমের ঘূর্ণিতে ২৫৯ রানে থামল ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রথম ইনিংস

ফল আসতে হয়তো শেষদিন পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হতে পারে। তবে তার আগে অলরাউন্ডিং পারফর্ম্যান্সের জন্য চট্টগ্রাম টেস্ট স্মরণীয় হয়ে থাকবে মেহেদী হাসান মিরাজের ক্যারিয়ারে।

ব্যাট হাতে অভিষেক টেস্ট সেঞ্চুরিতে বাংলাদেশকে বড় স্কোর এনে দিন তিনি। পরে বল হাতেও জাদু দেখালেন মিরাজ। ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রথম ইনিংসের ৪ উইকেটই গেছে ২৩ বছর বয়সী অলরাউন্ডারের ঝুড়িতে।

আর একটি উইকেট পেলেই সাকিব আল হাসান ও সোহাগ গাজীর পাশে বসতে পারতেন মিরাজ।  কিন্তু একই টেস্টে সেঞ্চুরি ও ৫ বা তার বেশি উইকেটের অনন্য কীর্তি গড়া হলো না তার। এর আগে বাংলাদেশের হয়ে এমন মাইলফলকে পা রেখেছেন কেবল সাকিব ও গাজী। তবে এমন কীর্তি এক ইনিংসে দু’বার করে দেখিয়েছেন সাকিব। তবে দ্বিতীয় ইনিংসে এমন কীর্তি গড়ার সুযোগ থাকছে মিরাজের সামনে।

কুঁচকির চোটের কারণে তৃতীয় দিনে সাকিবের মাঠে নামা নিয়ে শঙ্কা ছিল। তবে বোলিংয়ে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের অভাব বুঝতে দিলেন না বাংলাদেশের বাকি তিন স্পিনাররা। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট তুলে নিয়ে ২৫৯ রানে ক্যারিবিয়ানদের প্রথম ইনিংস থামিয়ে দেয় তারা। এর আগে মিরাজের ১০৩ রানের সুবাদে বাংলাদেশ প্রথম ইনিংসে করে ৪৩০ রান।