মিঠাপুকুরে প্রাচীন মূর্তি ও হ্যান্ড গ্রেনেড উদ্ধার

আমিরুল কবির সুজন, মিঠাপুকুর (রংপুর) প্রতিনিধি:  রংপুরের মিঠাপুকুর উপজেলায় মাটি খনন করতে গিয়ে ২ কেজি ওজনের একটি প্রাচীন মূর্তি ও হ্যান্ড গ্রেনেড পাওয়া গেছে। গতকাল সোমবার বিকেলে উপজেলার ময়েনপুর ইউনিয়ন থেকে মৃর্তি ও পায়রাবন্দ ইউনিয়ন থেকে একটি হ্যান্ড গ্রেনেড উদ্ধার করে পুলিশ।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত উদ্ধারকৃত মূর্তি ও গ্রেনেডটি মিঠাপুকুর থানা হেফাজতে রয়েছে। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার ময়েনপুর ইউনিয়নের ময়েনপুর গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের পরিত্যক্ত একটি জমি থেকে স্থানীয় কয়েকজন মাটি খনন করে ওই মাটিগুলো একটি রাস্তা ভরাটের কাজ করছিলেন। এসময় বেরিয়ে আসে মাটির নীচে থাকা আনুমানিক ২শ বছরের পুরোনো একটি মূর্তি।

বিষয়টি আব্দুর রাজ্জাককে জানালে তিনি পুলিশে খবর দেন। পরে সেখান থেকে মূর্তিটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ। মূর্তিটির ওজন প্রায় ২ কেজি ৫০০ গ্রাম । মূর্তিটি স্বর্ণ বা ব্রোঞ্জ’র তৈরী হতে পারে বলে ধারনা করছেন স্থানীয়রা। অপরদিকে উপজেলার পায়রাবন্দ ইউনিয়নের ঘাঘট নদীতে পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মীরা নদী খননের সময় শত বছরের পুরনো একটি অবিস্ফোরিত হ্যান্ড গ্রেনেড বেরিয়ে আসে। শ্রমিকরা গ্রেনেডটি দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেয়।

পরে সেখান থেকে গ্রেনেডটি উদ্ধার করে পুলিশ। স্থানীয়দের ধারণা উদ্ধারকৃত গ্রেনেডটি মুক্তিযুদ্ধকালীন সময়ের হতে পারে। মিঠাপুকুর থানা পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) জাকির হোসেন জানান, উদ্ধার হওয়া মূর্তিটি বর্তমানে থানা হেফাজতে রয়েছে। পরীক্ষা করার পর বোঝা যাবে মূর্তিটি কিসের তৈরী। বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবগত করা হয়েছে অপরদিকে হ্যান্ড গ্রেনেডটির বিষয়ে বিস্ফোরক দলকে অবগত করা হয়েছে বলে জানান তিনি।