মিঠাপুকুরে গাছ কাটাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ; গৃহবধুর মৃত্যু

আমিরুল কবির সুজন, মিঠাপুকুর প্রতিনিধিঃ রংপুরের মিঠাপুকুর উপজেলার ময়েনপুর পুর্বপাড়া গ্রামে গাছ কাটা নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষে এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে। নিহত ওই গৃহবধুর নাম পেয়ারী বেগম। স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে, আগে থেকেই জমি সংক্রান্ত জেরে দুই পরিবারের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল।

গত শনিবার প্রতিপক্ষ আনোয়ারুল ইসলাম তার স্ত্রী-সন্তানসহ জোরপূর্বক সিরাজুল ইসলামের বসতভিটার একটি গাছ কাটতে যায়। এরপর সিরাজুল ও তার স্ত্রী পিয়ারী বেগমসহ প্রতিবেশীরা ওই গাছ কাটতে বাধা দেয়।

একপর্যায়ে আনোয়ারুল ক্ষিপ্ত হয়ে তার লোকজনসহ ঘরের খুঁটি দিয়ে পিয়ারী বেগমের মাথায় আঘাত করে। স্থানীয়দের সহায়তায় গুরুতর আহত অবস্থায় পিয়ারী বেগমকে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সোমবার রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় পিয়ারী বেগম মারা যান। নিহত পেয়ারী বেগমের দুই কন্যা ও ২ পুত্র সন্তান আছে।

এ ঘটনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি দাবি করেছেন নিহতের স্বজনরা। নিহতের স্বামী সিরাজুল ইসলাম জানান, আমার বতসভিটার জমির গাছ ওরা কাটতে এসে আমার স্ত্রীকে নির্মম ভাবে হত্যা করলো। আমি হত্যাকারীদের ফাঁসি চাই।

মিঠাপুকুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জাফর আলী বিশ্বাস জানান লাশ ময়নাতদন্তের জন্য হাসাপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।