মায়ের কোলে ফিরলেন সুমি  

দেশে ফিরলেন সৌদি আরবে নির্যাতিত সেই গৃহকর্মী সুমি আক্তার।আজ (১৫ নভেম্বর) সকালে এয়ার এরাবিয়ার জি৯-৫১৭ ফ্লাইটে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছান সুমি। একই সঙ্গে সৌদি থেকে আরও ৯১ নারী গৃহকর্মীও দেশে ফিরেছেন।

এদিকে সুমির স্বজনরা ধন্যবাদ জানিয়েছেন সরকারকে। সুমির স্বামী বলছেন দেশে ফেরায় খুব আনন্দ লাগেছে তার কিন্তু একরাশ হতাশাও আছে তিনি বলছেন ভাগ্য ফেরাতে সৌদি পাড়ি জমিয়েছিলো সুমি কিন্তু এখন সে খালি হাতে ফিরেছে।

সুমি আক্তার পঞ্চগড় জেলার বোদা সদর থানার রফিকুল ইসলামের মেয়ে। দুই বছর আগে আশুলিয়ার চারাবাগের নুরুল ইসলামের সঙ্গে তার বিয়ে হয়।

সম্প্রতি ফেসবুকে কান্নাজড়িত কন্ঠে তার সঙ্গে ঘটে যাওয়া পাশবিক নির্যাতনের কথা বলে তাকে দেশে ফিরিয়ে আনার জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে অনুরোধ জানান সুমি। পরবর্তীতে ভিডিওটি ভাইরাল হলে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম সুমিকে দেশে ফিরিয়ে আনতে প্রতিমন্ত্রীর সহকারী একান্ত সচিব (এপিএস) সিরাজুল ইসলামকে নির্দেশ দেন।

এরপর গত ৪ নভেম্বর রাতে সুমিকে সৌদি পুলিশ তার কর্মস্থল থেকে উদ্ধার করে থানা হেফাজতে নিয়ে যায় । সেখানে পুলিশের তত্ত্বাবধানে নাজরান শহরের একটি সেইফ হোমে ছিলেন তিনি।

এরপর সুমিকে দেশে পাঠানোর জন্য ট্রাভেল এজেন্সি ‘রূপসী বাংলা ওভারসিজ’কে ২২ হাজার রিয়াল (প্রায় পাঁচ লাখ টাকা) ও প্লেনের টিকিট দেওয়ার প্রয়োজনীয় নির্দেশ দেওয়া হয়। পরে নাজরান শহরের শ্রম আদালতে সুমিকে দেশে ফেরার ‘ফাইনাল এক্সিট’ দেয়। সবশেষ আজ শুক্রবার (১৫ নভেম্বর) সৌদি আরব থেকে বাংলাদেশে ফেরেন সুমি।