মালয়েশিয়া ২২ বছর পর অর্থনৈতিক মন্দার কবলে জিডিপি কমেছে ১৭.১%

মালয়েশিয়ায় দীর্ঘ ২২ বছরের পর ভয়াবহ অর্থনৈতিক মন্দার কবলে পড়েছে দেশটি। করনোকালে জিডিপি ১৭.১% কমে যাওয়ায় এটা কে ১৯৯৮ সালের পর এই প্রথম বড়সর একটি ধাক্কা মনে করছে সংশ্লিষ্টরা। কারণ এর আগে ১৯৯৮ সালে প্রান্তিক জিডিপি ১১.২℅ কমে গিয়েছিল। মালয়েশিয়ার রাষ্ট্রীয় ব্যাংক নেগারা এই তথ্য প্রকাশ করেছে। খবরঃ মালয়েশিয়ার কিনি(kini) টেলিভিশন।

যদিও সরকার এই মন্দা পরিস্থিতি কাটিয়ে উঠতে সরকারি ও বিভিন্ন সেক্টরে ৩৫ বিলিয়ন রিংগিত আর্থিক প্রনোদনা ঘোষণা করেছেন। আশার কথা হলো ইতিমধ্যে এর সুফল পেতে শুরু করেছে দেশটি।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম বার্তা সংস্থা রয়টার্সের মতে, এশিয়া আর্থিক সংকটের পর থেকে এটি সবচেয়ে ভয়াবহ মন্দা যা ১৯৯৮ সালের প্রান্তিকে জিডিপি ১১.২ শতাংশ হ্রাস পেয়েছিল মালয়েশিয়ায়।

উল্লেখ্য যে কোভিড-১৯ ভাইরাস পরিস্থিতি মোকাবেলায় সরকার গত ১৮ ই মার্চ থেকে ক টানা ৩ মাস মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডার (এমসিও) লকডাউন বহাল রেখেছে। এসময় সরকারি বে সরকারি প্রতিষ্ঠান ও সব ধরনের কার্যক্রম বন্ধ রেখে সবাই কে ঘরে অবস্থান করার ব্যাবস্থা করা হয়েছিল। ৩ মাস পরে শর্তসাপেক্ষে সীমিত আকারে লকডাউন শিথিল করা হয়। ধীরে ধীরে স্বাভাবিক কার্যক্রমে ফিরে আসে মালয়েশিয়া। ইতিমধ্যে করোনা ভাইরাস প্রাদূর্ভাব সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ নিয়ে আসে সরকার। সবকিছু স্বাভাবিক থাকলে এখনোও রিকভারি মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডার (আরএমসিও) বহাল রেখে বিধি নিষেধ অব্যাহত আছে।