মালয়েশিয়ায় বাংলা টাইগার উদ্বোধন করলেন পররাষ্ট্র মন্ত্রী

আশরাফুল মামুন, মালয়েশিয়া প্রতিনিধিঃ মালয়েশিয়ায় বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশী রেমিট্যান্স যোদ্ধাদের পাসপোর্ট সহ দূতাবাসের সব ধরনের তথ্য সেবা নিশ্চিত ও হয়রানি বন্ধে বিদেশি মিশনের কুয়ালালামপুর বাংলাদেশ দূতাবাসে এই প্রথম ডিজিটাল অনলাইন প্লাটফর্ম বাংলা টাইগার নামে একটি অনলাইন সেবা চালু করা হয়েছে।

বুধবার (১০ মার্চ) মালয়েশিয়ার স্থানীয় সময় রাত ১০ টায় কুয়ালালামপুর বাংলাদেশ দূতাবাসের ভেরিফায়েড ফেইসবুক পেইজে ভার্চ্যুয়াল অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এর উদ্বোধন করা হয়।

ডটলাইন’স এর কারিগরি সহায়তায় এই এ্যাপস টি সার্বিক ব্যবস্থাপনা করবে কুয়ালালামপুরস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস।

উক্ত ভার্চ্যুয়াল উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ডেপুটি হাইকমিশনার মোঃ খোরশেদ খস্তগীর

এর পরিচালনায় ঢাকা থেকে যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথি হিসেবে ছিলেন পররাষ্ট্র মন্ত্রী ডঃ এ কে এম আঃ মোমেন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় দেশটিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার

মো: গোলাম সারওয়ার তার বক্তব্য বলেন, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা’ চালুর মাধ্যমে বিশ্বের প্রায়

৭৫টি বাংলাদেশ দূতাবাসের মধ্যে মালয়েশিয়াস্থ বাংলাদেশ হাইকমিশন হবে প্রথম সম্পূর্ণ ডিজিটাল হাইকমিশন। যার মাধ্যমে মালয়েশিয়ায় অবস্থানরত

প্রবাসী বাংলাদেশিরা যে কোন স্থান থেকেই সংযুক্ত হয়ে এই সেবা নিতে পারবে।

অনলাইনে স্বয়ংক্রিয় পদ্ধতিতে কয়েক সেকেন্ডের মধ্যেই সেবার সব ধরণের প্রশ্নের উত্তরও পেয়ে যাবেন তারা।

এর মধ্যদিয়ে সারা বিশ্বে বাংলাদেশের দূতাবাসগুলোর মধ্যে মালয়েশিয়ার দূতাবাস হবে সম্পূর্ণ ডিজিটাল দূতাবাস।

এছাড়াও মালয়েশিয়ার সরকারি পোস্ট অফিস পোস্ট লাজুর মাধ্যমে অনেক আগে থেকেই পাসপোর্ট আবেদন গ্রহন করা হচ্ছে।

শ্রীঘ্রই এ মাসের মাঝামাঝি থেকে প্রবাসীদের স্ব-স্ব ঠিকানায় পাসপোর্ট ডেলিভারি দেওয়া শুরু হচ্ছে ।

তিনি আরো বলেন, গত ৪ মাসে করোনাকালে দূতাবাসের কর্মকর্তা ও

কর্মচারীগণ অক্লান্ত পরিশ্রম করে ১ লাখ ৪০ হাজার পাসপোর্ট রেজিষ্ট্রেশন সম্পন্ন করেছে।

একই সঙ্গে দূতাবাস প্রতিনিয়ত প্রবাসীদের সেবা-দিতে কাজ করে যাচ্ছে বলে বললে রাষ্ট্রদূত মো. গোলাম সারওয়ার।

প্রধান অতিথির বক্তৃতায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আপনারা জানেন বাংলাদেশে মানি রেমিট্যান্স এর বিষয়ে ডিজিটাল পদ্ধতি গ্রহন করা হয়েছে।

এবং এর ফলে সেবা গ্রহীতাদের ব্যয়, হয়রানি, সময় ও অনিশ্চিয়তা প্রায় ৫৮ ভাগ কমেছে।

প্রিয় প্রবাসী ভাই ও বোনেরা আপনারা আমাদের অর্থনীতির মূল চালিকাশক্তি।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বলিষ্ঠ নেতৃত্বে আপনাদের কঠোর শ্রম ও ত্যাগের জন্য আমাদের অর্থনীতি দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে।

কুয়ালালাপুরে বাংলাদেশ দূতাবাসের এই ডিজিটাল প্লাটফর্ম বাংলা টাইগার এর মাধ্যমে অতি সহজে

হাইকমিশনে যুক্ত হয়ে আপনাদের সব তথ্য তুলে ধরে এর সমাধান করতে পারবেন।

সুতরাং পাসপোর্ট পেতে আপনাদের সময় ও ভোগান্তি আগের চেয়ে অনেক কমে যাবে।

এই ধরনের প্লাটফর্মে প্রবাসীদের ক্ষমতায়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে বলে মনে করি।

প্রবাসীদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আপনাদের প্রতি সব সময় আন্তরিক। তিনি আপনাদের জন্য ঋণ সুবিধা ও ২ পারসেন্ট প্রনোদনার ব্যাবস্থা করেছেন।

উদ্বোধনী অনুষ্টানে আরোও যুক্ত ছিলেন,বিশেষ অতিথি ছিলেন পররাষ্ট্র সচিব(পূর্ব) আশপ্রীতা শামস, ডটলাইন্স এর কর্নধার আঃ মতিন।

পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয় ও দূতাবাসের অন্যন্যা কর্মকর্তা বৃন্দ। উক্ত অনুষ্ঠান টি ফেইসবুক লাইভের মাধ্যমে সম্প্রচারিত হয়।