মালয়েশিয়ায় চতুর্থ দফায় লকডাউন ১২ মে পর্যন্ত

আশরাফুল মামুন, মালয়েশিয়া প্রতিনিধি: মালয়েশিয়ায় শুরু হওয়া লকডাউন বৃদ্ধি করে আগামী ১২ মে পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় রাত ৮টায় চতুর্থ বারের মতো জাতির উদ্দেশে ভাষণে প্রধানমন্ত্রী তান সেরি মহিউদ্দিন ইয়াসিন এ ঘোষণা দেন।

করোনা ভাইরাসের বিস্তার রোধে গত মাসের ১৮ মার্চ থেকে শুরু হয় লকডাউন। শেষ হওয়ার কথা ছিল ৩০ মার্চ। কিন্তু করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে চতুর্থ দ্বিতীয় দফায় চলতি মাসের ১২ মে পর্যন্ত ঘোষণা করেন সে দেশের প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী জানান, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের (কেকেএম) তথ্যের ভিত্তিতে তিনি দেখতে পেয়েছেন যে কভিড-১৯ প্রাদুর্ভাব রোধে এখনো প্রচেষ্টা চালিয়ে যাওয়া দরকার। এই সময়ের মধ্যে, সরকার পরবর্তী পদক্ষেপগুলি নির্ধারণের জন্য স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সরবরাহকৃত সর্বশেষ তথ্যের মূল্যায়ন করবে। তবে কোভিড-১৯ উল্লেখযোগ্য হ্রাস যদি অব্যাহত থাকে তবে সরকার ধীরে ধীরে সামাজিক খাতসহ বেশ কয়েকটি খাতের উপর নিয়ন্ত্রণ ত্যাগ করতে পারে।

এটি আরো স্বাচ্ছন্দ্যময় জীবনযাপন করতে সক্ষম করার জন্য। জাতীয় সুরক্ষা কাউন্সিল এ বিষয়ে একটি বিস্তৃত পরিকল্পনা প্রণয়ন করছে। এ সময় তিনি সবাইকে ধৈর্য ধারণ করার জন্য আহ্বান জানান।

আজ পর্যন্ত করোনাভাইরাসে মালয়েশিয়ায় পাঁচ হাজার ৬০৩ জন আক্রান্ত হয়েছে, মৃত্যু হয়েছে ৯৫ জনের। সুস্থ হয়ে ফিরেছেন তিন হাজার ৫৪২ জন।

লকডাউন বাস্তবায়নে পুলিশের পাশাপাশি অতিরিক্ত সেনা মোতায়েন করা হয়েছে। বিভিন্ন জায়গায় বসানো হয়েছে চেকপোস্ট। এদিকে, এমন পরিস্থিতিতে ব্যাপক শঙ্কা আর খাদ্য সংকটে রয়েছেন প্রবাসী বাংলাদেশিরা। আর এই ক্রান্তিলগ্নে বাংলাদেশ সরকারের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন প্রবাসী বাংলাদেশিরা।

তবে এই মহামারি থেকে বেড়িয়ে আবার স্বাচ্ছন্দ্যে ফিরবে মালয়েশিয়া এমনটাই আশ্বাস দিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী তান শ্রি মুহিউদ্দিন ইয়াসিন।