মাধবদীর শেখেরচর বাবুরহাটে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান

সুমন পাল, মাধবদী(নরসিংদী) প্রতিনিধিঃ করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে গত দেড় মাস যাবৎ বন্ধ রয়েছে দেশের বৃহত্তম পাইকারী কাপড়ের হাট মাধবদীর শেখেরচর বাবুরহাট। কর্মহীন হয়ে পড়ে কয়েক হাজার ব্যবসায়ী ও শ্রমিক-কর্মচারী। শেখেরচর বাবুরহাট বণিক সমিতি মালিক পক্ষের অনুরোধে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব যাতে বিস্তার না করে সেদিকে লক্ষ্য রেখে বেশ কিছু শর্ত দিয়ে স্বল্প পরিসরে বাজার খোলার অনুমতি প্রদান করে নরসিংদী জেলা প্রশাসন। শেখেরচর বাবুরহাটের ব্যবসায়ীরা সেই সকল নিয়ম নীতি মেনে চলছে কিনা তা তদারকি করতে বাজারে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হয়।

নরসিংদী জেলা প্রশাসক সৈয়দা ফারহানা কাউনাইন এর নির্দেশনায় নরসিংদী জেলার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) চৌধুরী আশ্রাফুল ইসলামের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন রেভিনিউ ডেপুটি কালেক্টর ও নির্বাহি ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ আসসাদিকুজ্জামান ও সহকারী কমিশনার ( ভূমি) শাহ আলম মিয়া।এসময় উপস্থিত ক্রেতা ও বিক্রেতাদের কে সরকারি বিধি -নিষেধ সম্পর্কে অবহিত করে ভবিষ্যতে কেউ আইন ভঙ্গ করলে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে ও জানান ভ্রাম্যমাণ আদালত। ভ্রাম্যমাণ আদালতের চৌধুরী আশ্রাফুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, আজ আমরা অভিযান পরিচালনা করেছি বাবুর হাটে এবং মানবিক দিক বিবেচনা করে কাউকে গ্রেফতার বা জরিমানা করা হয়নি। আমরা তাদের সরকারি বিধি -নিষেধ সম্পর্কে অবহিত করেছি। আশা করি তারা আইন মেনে ব্যবসার কার্যক্রম পরিচালনা করবেন। শেখেরচর বাজার বাবুর হাট বণিক সমিতির ক্যাশিয়ার হাজি রুস্তম আলী বলেন, সরকার কে ধন্যবাদ জানাচ্ছি আমাদের কে ব্যবসায়িক কার্যক্রম পরিচালনার অনুমতি প্রদান করার জন্য।

নরসিংদী জেলা প্রশাসক সৈয়দা ফারহানা কাউনাইন এর নির্দেশিত চিঠি আমরা পেয়েছি যাতে উল্লেখ করা হয়েছে সকাল আটটা থেকে দুপুর দুই টা পর্যন্ত দোকান এক স্যাটার খোলা রেখে মালামাল ক্রয়-বিক্রয় করা যাবে। অনলাইন ও মোবাইলের মাধ্যমে মালের অর্ডার নিতে হবে এবং সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে বেচা-কেনা করতে হবে। আমরা ইতিমধ্যেই ক্রেতা-বিক্রেতাদের নিরাপত্তার বিষয়টি বিবেচনা করে প্রথম গলিতে জীবাণু নাশক ট্যানেল স্থাপন করেছি এবং পর্যায় ক্রমে বাকী গুলোতেও বসানো হবে। আমাদের বণিক সমিতির সভাপতি হাজি মোঃ বাকির চেয়ারম্যান বলেছেন, সরকারের সকল আইন মেনেই ব্যবসায়িক কার্যক্রম চলবে। কেউ এই আইন অমান্য করলে তার বিরুদ্ধে বণিক সমিতি ব্যবস্থা নিবে।

শেখেরচর বাজার ( বাবুর হাট) পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ মোঃ তানবির আহম্মেদ বলেন, পুলিশ আইন-শৃঙ্খলা বজায় রেখে বেচা-কেনা নিশ্চিত করতে বদ্ধ পরিকর। আমরা নিয়মিত টহল জোরদার করেছি এবং করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ হতে সাধারণ মানুষ কে রক্ষায় দিন-রাত কাজ করে যাচ্ছি। বাবুর হাটে আগত ক্রেতাদের অধিকাংশই বাজারের কার্যক্রম সীমিত পরিসরে চালু হওয়াতে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন। নিস্তব্ধতা কেটে ধীরে ধীরে শেখেরচর বাজারে আবার চালু হচ্ছে ব্যবসায়িক কার্যক্রম।