মহিপুরে র‌্যাবের অভিযান- ওয়ান শুটারগান ও রিভলবারসহ দুই জনকে গ্রেফতার

আনোয়ার হোসেন আনু, কলাপাড়া (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি: পটুয়াখালীর মহিপুর থানা সদরে ইউপি নির্বাচনে ভোট গ্রহণের মাত্র তিনদিন আগে র‌্যাবের অভিযানে সরকার দলীয় নৌকা মার্কার চেয়ারম্যান প্রার্থীর ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে দু’জনকে গ্রেফতারসহ অস্ত্র ও গুলি উদ্ধারের ঘটনা ঘটেছে।

বরিশাল র‌্যাব-৮ শনিবার বিকেলে তাদের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, শুক্রবার দিবাগত রাত ১ টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মহিপুরের একটি মাছের আড়ৎ থেকে সোহাগ জোমাদ্দার (৩০) ও ফারুক খন্দকার (৫০) নামে দু’জনকে আটক করা হয়। র‌্যাবের দাবি অনুযায়ী আটককৃতদের তথ্যের ভিত্তিতে এসময় দু’টি ওয়ান শুটারগান, দুই রাউন্ড কার্তুজ, একটি বিদেশী রিভলবার ও আট রাউন্ড গুলি এবং দু’টি চাপাতি উদ্ধার করা হয়েছে।

র‌্যাব-৮, বরিশাল সিপিসি-১ এর ডিএডি মোঃ মোক্তার হোসেন বাদী হয়ে শনিবার সন্ধ্যায় জেলার মহিপুর থানায় অস্ত্র আইনে একটি মামলা দায়ের করেছে বলে মহিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ মনিরুজ্জামান যুগান্তরকে জানিয়েছেন। আগামী ২০ অক্টোবর মহিপুর ইউপি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবার কথা রয়েছে।

ওই নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনিত প্রার্থী এবং বিএনপির ইউনিয়ন শাখার সহ সভাপতি স্বতন্ত্র প্রার্থী নির্বাচনী মাঠে লড়ছেন। এদিকে, র‌্যাবের অস্ত্র উদ্ধার এবং দু’জনকে গ্রেফতারের ঘটনাকে প্রতিপক্ষ স্বতন্ত্র ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থী হাজী ফজলু গাজীর ষড়যন্ত্র উল্লেখ করে শনিবার সকালে নৌকা মার্কার ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থী আঃ মালেক আকন্দ একটি সংবাদ সম্মেলন করেছেন।