মনপুরায় মহিষের মাথা কেটে রেখে মাংস নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা, আতঙ্কিত মহিষ মালিকরা

সীমান্ত হেলাল, মনপুরা (ভোলা) প্রতিনিধি: ভোলার মনপুরায় ২ টি মহিষ জবাই করে মাথা কেটে ফেলে রেখে মাংস নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা। উপজেলার দক্ষিন সাকুচিয়া ইউনিয়নের চর পাতালিয়া নামক স্থানে এই ঘটনা ঘটে। শনিবার দিবাগত রাত থেকে নিখোঁজ ছিলো মহিষ দুটি।

উপজেলার বিভিন্ন চরে অনেক খোঁজাখুঁজির পর মঙ্গলবার (১ ডিসেম্বর) বিকেল ৩ টায় চরপাতালিয়ার কেঁওড়া বন থেকে পতিত অবস্থায় মহিষের মাথা দুটি উদ্ধার করা হয়। উক্ত ঘটনায় গো-খাদ্যের জন্য উপজেলার বিভিন্ন চরে থাকা হাজার হাজার মহিষের মালিকরা আতঙ্কগ্রস্থ রয়েছেন।

নিখোঁজ মহিষের মালিক উপজেলার দক্ষিন সাকুচিয়া ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দ মোঃ ছাত্তার মাস্টার জানান, শনিবার দিবাগত রাত থেকে মহিষ দুটি নিখোঁজের খবর পাই বাথানিয়াদের (রাখাল) কাছ থেকে। তার পর থেকে বিভিন্ন চরে খোঁজাখুজি করি আমরা। পরে চরের কাঠকুড়ানীদের কাছ থেকে খবর পেয়ে চর পাতালিয়ার কেওড়া বন থেকে পতিত অবস্থায় মাথা দুটি উদ্ধার করি। জবাই করে মাথা ফেলে রেখে মাংস নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা।

এব্যাপারে উপজেলার দক্ষিন সাকুচিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আলহাজ¦ অলিউল্লাহ কাজল জানান, বিষয়টি খুবই অমানবিক। বিভিন্ন সময়ে বহিরাগত চোর চক্র মনপুরার বিভিন্ন চর থেকে মহিষ চুরি করে নিয়ে যায়। উক্ত ঘটনায় আমরা খুবই আতঙ্কিত।