মনপুরায় চাঞ্চল্যকর গণধর্ষণ মামলার আসামীদের ৩ দিনের রিমান্ড, ১ আসামী এখনো পলাতক

সীমান্ত হেলাল, মনপুরা (ভোলা) প্রতিনিধিঃ ভোলার মনপুরায় চাঞ্চল্যকর গণধর্ষণ মামলায় আসামীদেরকে ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত। শনিবার (১২ সেপ্টেম্বর) ভোলা জজ কোর্টে গ্রেফতারকৃতদেরকে হাজির করে অধিকতর তদন্ত ও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমান্ড আবেদন করে মনপুরা থানা পুলিশ। বিজ্ঞ আদালত আবেদন আমলে নিয়ে আসামীদের ৩ তিন দিনের রিমান্ড মজ্ঞুর করেন।

এক কিশোরীকে খালার বাড়ি থেকে তুলে সংঘবদ্ধ ধর্ষনের অভিযোগে মনপুরা থানায় ৫ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করা হয়। এখন পর্যন্ত ৪ আসামীকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছে পুলিশ। বাকী ১ আসামী মোঃ রুবেল এখন পর্যন্ত পলাতক রয়েছেন।

গ্রেফতারকৃত আসামীরা হলেন, উজলোর রামনেওয়াজ ইউনিয়নের কুলাগাজীর তালুক গ্রামের শামীম (১৮), সাকিব (১৮), করিম (৩০) ও জোবায়ের (১৭)।

গ্রেফতাকৃত আসামীদের মধ্যে সাকিব ও করিম ঘটনার সাথে জড়িত থাকার কথা আদালতে স্বীকার করেন। বাকী ২ আসামী জোবায়ের ও শামীম অভিযোগ অস্বীকার করায় তাদের দুই জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমান্ডের নির্দেশ দেয় আদালত।

রোববার (১৩ সেপ্টেম্বর) সকালে জোবায়ের ও শামীমকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মনপুরা থানায় আনা হয়।

উল্লেখ্য, নির্যাতিতা কিশোরী কুরবানীর ঈদের পর গত একমাস পূর্বে ঢাকা থেকে মনপুরায় তার খালা বাড়িতে বেড়াতে আসেন। সে তার মায়ের কাছে ঢাকায় থাকতেন বলে পরিবার সূত্রে জানা যায়। গত সোমবার (৭ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাতে ওই কিশোরী সংঘবদ্ধ ধর্ষনের স্বীকার হন। প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে গেলে ওই কিশোরীকে মুখ চেপে তুলে নিয়ে যায় ধর্ষণকারীরা। রাতভর সংঘবদ্ধ ধর্ষণ শেষে উপজেলার কুলাগাজীর তালুক সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ফেলে রেখে যায় কিশোরীকে। পরদিন সকালে সংজ্ঞাহীন অবস্থায় এলাকাবাসী তাকে উদ্ধার করে।

মনপুরা থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শাখাওয়াত হোসেন জানান, গণধর্ষনের অভিযোগে গ্রেফতারকৃত আসামীদের অধিকতর তদন্ত ও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আমরা বিজ্ঞ আদালতের কাছে রিমান্ড আবেদন করেছি। আদালত রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন। বাকী পলাতক আসামী মোঃ রুবেলকে গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।