মনপুরায় কর্মবিরতিতে স্বাস্থ্যকর্মীরা, ব্যহত হচ্ছে টিকাদানসহ জরুরি স্বাস্থ্যসেবা

সীমান্ত হেলাল, মনপুর (ভোলা) প্রতিনিধি: নিয়োগবিধি সংশোধন ও বেতন বৈষম্য নিরসনের দাবীতে সারা দেশের ন্যায় কর্ম বিরতিতে রয়েছেন ভোলার মনপুরা উপজেলার স্বাস্থ্য সহকারীরা। দাবী আদায়ের লক্ষ্যে ২৬ নভেম্বর থেকে শুরু করে গত ৭ দিন যাবৎ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সামনে অবস্থান করে কর্মবিরতিতে রয়েছেন স্বাস্থ্য সহকারীরা। এতে জরুরী স্বাস্থ্যসেবা, টিকাদান ও করোনা নমুনা সংগ্রহ থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন উপজেলার হাজার হাজার মানুষ।
হাসাপাতাল ঘুরে দেখা গেছে, নবজাতক শিশুদেরকে টিকা না দিতে পেরে বাচ্চাদেরকে ফিরিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন অনেকে। এব্যাপারে ছোট শিশু ও নবজাতকের অভিভাবকরা জানান, আমরা গত সপ্তাহে এসেও ফেরত গিয়েছি বাচ্চা নিয়ে। আজ এসেও হাসপাতালে বসে আছি। কিন্তু কোন স্বাস্থ্য সহকারী টিকা দিতে রাজি হচ্ছেন না। স্বাস্থ্য পরিদর্শক-১১ তম, সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শক-১২ তম ও স্বাস্থ্য সহকারীদের-১৩ তম গ্রেডে বেতন প্রদানের দাবীতে কর্মবিরতিতে হাসপাতালের সামনে অবস্থান করছেন, মনপুরা উপজেলা স্বাস্থ্য সহকারী মোঃ ফারুক হোসেন, মোঃ নজরুল ইসলাম, অনিল চন্দ্র দাস, মলয় কৃষ্ণ দাস, মোঃ আজাদ, আব্দুর রাজ্জাক, মোঃ মনিরুজ্জামান, মোঃ নাজিম উদ্দিন প্রমূখ।
এসময় দাবী বাস্তবায়ন স্বাস্থ্য সহকারী এসোসিয়েশনের ভোলা জেলা আহবায়ক কমিটির কার্যকরী সদস্য মোঃ আলাউদ্দিন বলেন, ১৯৯৮ সালে প্রধানমন্ত্রীর ঘোষনা, ২০১৮ সালে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর ঘোষনা ও ২০২০ সালের ২০ ফেব্রুয়ারী স্বাস্থ্যমন্ত্রীর লিখিত প্রতিশ্রুতি দ্রুত বাস্তবায়ন করে আমাদেরকে কর্মক্ষেত্রে ফিরিয়ে নেয়ার আহবান জানাচ্ছি প্রধানমন্ত্রীর কাছে।