ভোজ্যতেলের দাম নির্ধারণ

অত্যাবশ্যকীয় পণ্য ভোজ্যতেলের মূল্য নির্ধারণ করে দিয়েছে সরকার।

অপরিশোধিত সয়াবিন ও পামওয়েলের দাম স্থিতিশীল রাখতে লিটারপ্রতি মূল্য নির্ধারণ করে দিয়েছে সরকার।

ভোজ্যতেল আমদানিকারক ও ব্যবসায়ীদের সঙ্গে আলোচনা করে এ দাম মির্ধারণ করেছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়।

এখন থেকে প্রতি লিটার খোলা সয়াবিন মিলগেটে ১১৩ টাকা, পরিবেশক মূল্য ১১৫ টাকা এবং খুচরা মূল্য ১১৭ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

প্রতি লিটার বোতলজাত সয়াবিন মিলগেটে ১২৭ টাকা, পরিবেশক ১৩১ টাকা এবং খুচরা মূল্য ১৩৯ টাকা নির্ধারণ করা হয়।

আর পাঁচ লিটার বোতলজাত সয়াবিন তেলের মিলগেট মূল্য ৬২০ টাকা, পরিবেশক মূল্য ৬৪০ টাকা এবং খুচরা মূল্য ৬৬০ টাকা নির্ধারণ করে দেয়া হয়েছে।

এদিকে প্রতি লিটার খোলা পামওয়েল মিলগেট মূল্য ১০৪ টাকা, পরিবেশক মূল্য ১০৬ টাকা এবং খুচরা মূল্য ১০৯ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সূত্র জানিয়েছে, আন্তর্জাতিক বাজারে অপরিশোধিত সয়াবিন ও পাম তেলের মূল্যে

অস্থিতিশীলতা থাকায় আন্তর্জাতিক বাজার অনুযায়ী স্থানীয় মূল্য সমন্বয়ের লক্ষ্যে জাতীয় কমিটি দেশের

পরিশোধনকারী মিল ও ভোক্তাদের স্বার্থ বিবেচনায় সভা করেছে।

জানা গেছে, দেশে ভোজ্যতেলের বার্ষিক চাহিদা প্রায় ২০ লাখ মেট্রিক টন, যার প্রায় সবই আন্তর্জাতিক বাজার

থেকে আমদানির মাধ্যমে পূরণ করা হয়।

বিগত জুলাই মাস থেকে আন্তর্জাতিক বাজারে অপরিশোধিত সয়াবিন ও অপরিশোধিত পাম তেলের বাজার

মূল্যে ঊর্ধ্বমূখী প্রবণতা দেখা যায়।