ভৈরব অজ্ঞাত যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে নৌ থানা পুলিশ

জয়নাল আবেদীন রিটন, ভৈরব প্রতিনিধি:  ভৈরবে পঞ্চবটি শ্মশানঘাট এলাকা থেকে অজ্ঞাতনামা (২৬) যুবকের হাত-পা বাধা নদীতে ভাসমান অবস্থায় লাশ উদ্ধার করেছে ভৈরব নৌ থানা পুলিশ। মঙ্গলবার রাত ১১ টায় এলাকাবাসীর মাধ্যমে খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে।

মৃত যুবকের পরনে ছিল লীল রঙের ফুল হাতা চেক শার্ট ও লীল রঙের জিন্স প্যান্ট। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পঞ্চবটি শ্মশান ঘাট এলাকায় রাত ১০ টার দিকে জেলেরা হাত পা বাধা অবস্থায় এক যুবকের লাশ ভাসতে দেখে ওই এলাকার কাউন্সিলর এর মাধ্যমে ভৈরব নৌ থানার পুলিশকে সংবাদ দেন। পুলিশ রাত ১১ টার শ্মশান ঘাট এলাকার নদী থেকে মৃতদেহটি উদ্ধার করে।

এ বিষয়ে অত্র ওয়ার্ড কাউন্সিলর রাজু মিয়া বলেন, এলাকার জেলেদের মাধ্যমে খবর পেয়ে এসে লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খরব দিলে নৌ পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে নিয়ে যায়। অন্য কোন জায়গা থেকে ভেসে আসতে পারে বলে তিনি জানান। এ বিষয়ে ভৈরব নৌ পুলিশের উপপরিদর্শক রাসেল আহম্মদ জানান, পঞ্চবটির এলাবাসীর মাধ্যমে খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসি। প্রাথমিকভাবে সুরাতহাল রিপোর্ট অনুযায়ী মৃত যুবকের হাত পা বাধা অবস্থায় গলায় ধাড়ালো ছুরির আঘাতে চিহৃ পাওয়া গেছে এটি হত্যাকাণ্ড হতে পারে পরিচয় শনাক্তের জন্য কাজ করছে পুলিশ।

এবিষয়ে ভৈরব নৌ-থানার ওসি মোঃ তরিকুল ইসলাম তালুকদার জনান ময়নাতদন্তের জন্য লাশটি কিশোরগঞ্জ সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে এটি একটি পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড হতে পারে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলেই মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে। এ বিষয়ে থানায় একটি মামলা দায়েরর প্রস্তুুতি নিচ্ছেন বলে জানান তিনি।