ভৈরবে ৩২ ঘন্টা পর শিশুর লাশ উদ্ধার

জয়নাল আবেদীন রিটন, ভৈরব প্রতিনিধি: ভৈরবে হাত্তেেরর পানিতে পড়ে নিখোঁজের ৩২ ঘন্টা পর শ্যামপুর এলাকা থেকে মোস্তাকিন নামে (৪) বছরের শিশুর ভাসমান লাশ উদ্ধার করেছে এলাকাবাসী। শিশু সন্তানের লাশ দেখে পিতা মাতার কান্নায় ওই এলাকার আকাশ বাতাস ভারি হয়ে উঠেছে । বাড়িটিতে চলছে শোকের মাতম।

লাশ পেতে গতকাল থেকে আজ বিকেল পর্যন্ত হাওরের বিভিন্ন স্থানে অনেক খোঁজাখুজি করেছেন পরিবারের লোকজনসহ ফায়ার সার্ভিসের লোকজনও। কিন্তু কোথাও শিশুটির লাশ দেখতে পাওয়া যায়নি। পরিশেষে আজ দুপুরে কিশোরগঞ্জ থেকে পাঁচ সদস্যের একটি ডুবুরি দলও ওই হাওরে লাশ খুজে পেতে অনেক চেষ্টা চালিয়ে ছিল। বিফল হয়ে ফিরে আসে ডুবুরি দলও। সন্ধ্যা বেলায় এলাকাবাসী শ্যামপুর একটি ব্রীজের নিকট লাশটি ভাসতে দেখে সনাক্ত করা হয় গতকালের নিখোঁজ হওয়া শিশু মোস্তাকিমের লাশ এটা। খবর পেয়ে মোস্তাকিনের লাশ পরিবারের লোকজন বাড়িতে নিয়ে যায়।

উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে বারটার সময় আগানগর ইউনিয়নের লুইন্ধা খলাপাড়া পশ্চিমমাথা এলাকায় আব্দুল হেকিম মিয়অর বাড়িতে দুপুরের খাবারের পর মোস্তাকিন বাড়ির আঙ্গিনায় খেলছিল। খেলতে গিয়ে অসতর্কাবস্তায় মোস্তাকিন পানিতে পড়ে যায়। খবর পেয়ে নিহতের পিতা মাতাসহ এলাকাবাসী অনেক খুজেও কোথাও মোস্তাকিনের লাশ পায়নি। ফায়ার সার্ভিসের লোকজন এসেও কোন খোজঁ করতে পারেনি পানিতে ডুবে যাওয়া মোস্তাকিনের লাশের ।