ভৈরবে র‌্যাবের অভিযানে প্রায় ১ হাজার কেজি ভেজাল মশলা জব্দ; ৪ লাখ টাকা জরিমান

জয়নাল আবেদীন রিটন, ভৈরব প্রতিনিধি: কিশোরগঞ্জের ভৈরবে র‌্যাবের অভিযানে প্রায় ১ হাজার কেজি ভেজাল মশলা জব্দ করা হয়। মঙ্গলবার দুপুরে শহরের রানীর বাজার এলাকায় এই অভিযানে মিল মালিক আলমগীর মিয়া ও মশলার বেপারী আনোয়ার মিয়াকে র‌্যাব সদস্যরা আটক করে। এ সময় তারা মশলায় ক্ষতিকারক রং ও ধানের কুড়া মিশিয়ে ভেজাল মশলা তৈরি করছিল। মশলায় ভেজাল মিশ্রন করার অভিযোগে ভ্রাম্যমান আদালত এই দুইজনকে ৪লাখ টাকা জরিমানা করেন।

ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন ভৈরব উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও ম্যাজিস্ট্যাট লুবনা ফারজানা। ভৈরব র‌্যাব-১৪ এর উপঅধিনায়ক চন্দন দেবনাথ জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ভৈরব র‌্যাব-১৪ ক্যাম্পের সদস্যরা মঙ্গলবার দুপুরে শহরের রানীর বাজার আলমগীর মিয়ার মশলা মিলে অভিযান চালায়। এসময় মিলে অপরাধীরা ধন্যার সাথে কুড়া, হুলুদের সাথে ডাল, নিম্নমানের মরিচের সাথে সিঁদুরের রং ও চালের গুড়া মিশ্রন করে মেশিনে পাউডার করছিল। পরে ভেজাল মিশ্রিত প্রায় ১হাজার কেজি ভেজাল মশলা জব্দ করা একটি ডোবায় ফেলে র্দো হয়। পরে তারা দুজন দোষ স্বীকার করলে তাদেরকে উলে¬খিত সাজা দেয়া হয়।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট লুবনা ফারজানা বলেন, ভেজাল মসলা ব্যবসায়ী আলমগীর ও ক্রেতা আনোয়ার হোসেনকে ৪ লক্ষ টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে ২ বছরের জেল দেয়া হয়েছে। মানবদেহের জন্য ক্ষতিকারক ভেজাল মসলা তৈরীর ফ্যাক্টরিটি সিলগালা করে দেয়া হয়েছে। মানুষ যেন লকডাউন অমান্য না করে এবং ঘরে থাকে করোনা প্রতিরোধে সহায়তা করেন সেজন্য তাদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।