ভৈরবে ভর্তি হতে আসা শিক্ষার্থীদের পদচারণায় মুখরিত কলেজ ক্যাম্পাস

জয়নাল আবেদীন রিটন, ভৈরব প্রতিনিধি: মহামারি করোনা ভাইরাসের কারণে দীর্ঘদিন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকার পর জেলা পর্যায়ের শ্রেষ্ঠ কলেজের স্বীকৃতিপ্রাপ্ত জেড.রহমান প্রিমিয়ার ব্যাংক স্কুল এন্ড কলেজে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি কার্যক্রম চলছে।

এবার তিন শতাধিক শিক্ষার্থী কলেজের মানবিক, বানিজ্য ও বিজ্ঞান শাখায় ভর্তি হবে বলে জানা গেছে। অন লাইনে ভর্তির আবেদনের পর গত ১৩ সেপ্টেম্ভর থেকে আজ পর্যন্ত প্রায় দুই শতাধিক শিক্ষার্থী কিশোরগন্জের। ভৈরবের বাশঁগাড়ি গ্রামে জেড রহমান প্রিমিয়ার ব্যাংক স্কুল এন্ড কলেজে শতস্ফুর্ত ভাবে ভর্তি হচ্ছেন।

সরকারের নির্দেশনায় গত ১৩ সেপ্টেম্ভর থেকে ভর্তি কার্যক্রম চালু হয়েছে। ভর্তি হতে আসা তাদের প্রিয় কলেজ ক্যাম্পাসে আসতে পেরে তারা অনেক আনন্দিত পাশাপাশি শিক্ষকরাও দীর্ঘদিন ঘরবন্ধি থেকে কলেজ মুখি হতে পেরে তারাও অনেক খূশি। আগামী ১৭ সেপ্টেম্ভর পর্যন্ত প্রতিদিন শিক্ষার্থীদের ভর্তি কার্যক্রম চলতে থাকবে বলে জানান প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকরা।

জেড রহমান প্রিমিয়ার ব্যাং স্কুল এন্ড কলেজের বাংলা বিভাগের প্রভাষক আমরা দীর্ঘ প্রায় পাছঁ মাস যাবত গৃহবন্ধি আছি। তারপরও শিক্ষার কার্যক্রমকে এগিয়ে নিয়ে যেতে সরকারের কাছ থেকৈ আমাদের যে নির্দেশনা এসেছে সেইে আলোকে আমরা আমাদের ভর্তি কাযক্রম পরিচালনা করছি। প্রভাষক হারুন মাহমুদ সুফল বলেন,

করোনার সংক্রমন এড়াতে অনেক দিন পর্যন্ত আমাদের প্রিয় ক্যাম্পাসে আসা হয় নাই। সরকারের যথাসময়ে ভর্তি কার্যক্রমের সিদ্ধান্ত নেওয়ার ফলে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি কার্যক্রমে অংশ নিতে এবং আবারও আমার ছাত্রছাত্রীদের মাঝে ফিরে আসতে পেরে আমার খুবই ভাল লাগতেছে। আমরা এখন ছাত্র ছাত্রিদেরকে ভর্তি করতে পারতেছি এবং শিক্ষামুখি করার সুযোগ পেয়েছি বলে সরকারকে অসংখ্য ধন্যবাদ।

শিক্ষার্থীরা বলেন, করোনা কালিন সময়ে অমাদের স্কুল বন্ধ থাকায় আমরা অনেক দিন পর্যন্ত গৃহবন্ধি হয়েছিলাম। আমরা ভাবতে পারিনি এক তাড়াতাড়ি আমাদের প্রিয় ক্যম্পাসে আবারো ফিরে আসতে পারব। আজ সহপাঠিদের সাথে মিশতে পেরে আমরা অনেক খূশি হয়েছি এখন অনেক ভাল লাগছে।