ভৈরবে চকলেটের লোভ দেখিয়ে শিশুর স্লীলতাহানির অভিযোগে থানায় মামলা

জয়নাল আবেদীন রিটন, ভৈরব প্রতিনিধি: কিশোরগঞ্জের ভৈরবের পঞ্চবটি এলাকায় চকলেটের লোভ দেখিয়ে নয় বছরের এক শিশু (মেয়ে)র স্লীলতাহানি ঘটানোর অভিযোগ উঠেছে জয়নউদ্দিন নামের(৫৫) বছর বয়সের এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে।

এই ঘটনায় ভিকটিম শিশুর মা নাছিমা বেগম বাদী হয়ে ভৈরব থানায় একটি মামলা দায়ের করেন । ঘটনার পর পর পুলিশী তদন্তে নামে । তদন্তে সত্যতা পাত্তয়ায় গত বৃহস্পপতিবার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে জয়ন উদ্দিন কে অভিযুক্ত করে ভৈরব থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। অভিযুক্ত জয়নুদ্দিন পৌর শহরের পঞ্চবটি বউ বাজার এলাকার মৃত নাগর আলী মেস্তুরীর ( মহিউদ্দিন ) ছেলে।

ঘটনার পর থেকেই অভিযুক্ত পলাতক রয়েছে। তাকে গ্রেফতারে পুলিশী অভিযান অব্যাহত আছে বলে জানিয়েছেন পুলিশ। পরিবারের সদস্য ও পুলিশ জানায়, শিশুটির বাবা নেই। কয়েক বছর আগে শিশুটির বাবা মারা গেছে। মায়ের কাছে শিশুটি বড় হচ্ছে। জয়ন উদ্দিন শিশুটির প্রতিবেশী। শিশুটি জয়ন উদ্দিনকে দাদা বলে ডাকতো। প্রতিবেশী হিসেবে শিশুটির ঘরে জয়ন উদ্দিনের আসা যাওয়া ছিল প্রায়ই।

সে সুবাদে সোমবার (২৬ অক্টোবর) সকাল ১০টার দিকে জয়ন উদ্দিন শিশুটির ঘরে যায়। প্রতিদিনের ন্যায় জীবিকার তাগিদে শিশুটির মা পুরাতন লোহলক্কর (ভাঙ্গারী) টুকাতে বাড়ীর বাহিরে যায়। ঐদিন সকালে ঘরে ছিল শিশুটির নানি আয়েশা খাতুন। ঘটনার পূর্বে দশ টাকা দিয়ে সদায় কিনতে নানীকে কৌশলে দোকান পাঠায় অভিযুক্ত জয়নুদ্দিন।

এই সুযোগে জয়নউদ্দিন শিশুটির হাতে দশ টাকা দিয়ে চকলেট কিনে খেতে বলেন। এরপর দরজা আটকে দিয়ে শিশুটিকে ঝাপটে ধরে এবং শিশুটর স্পর্শ কাতর স্থানে হাতদিয়ে স্লীলতাহানি ঘটায়। শিশুটির চিৎকারে এক প্রতিবেশী এগিয়ে আসলে জয়নউদ্দিন তখন ঘর থেকে বেরিয়ে পালিয়ে যায়। ভিকটিম শশু জানায়, আজ সকালে আমাদের ঘরে এসে আমার নানীকে দশ টাকা দিয়ে দোকানে সদায় আনতে পাঠায় জয়নুদ্দিন।

পরে আমাকে দশ টাকা দিয়ে চকলেট খেতে বলে। এর পরেই দরজা আটকিয়ে আমার মুখ চেপে ধরে আমার শরীরের বিভিন্ন স্থানে হাত দিয়ে আমাকে কষ্ট দেয়। এসময় আমার নানী চলে আসলে জয়নুদ্দিন পালিয়ে যায়। নানী আয়েশা খাতুন বলেন, জয়নুদ্দিন প্রায়ই আমাদের ঘরে এসে বসে থাকতো। তার মনে কু-বুদ্ধি আছে আজ জানতে পারলাম।

আজ সকালে সে আমার নাতীর সাথে খুবই খারাপ আচরণ করেছে যা বলার ভাষা নেই। খালা পারভিন বলেন, জয়নুদ্দিন আজ সকালে আমার ফুপুর ঘরে এসে আমার বোনজিকে শ্লীলতাহানী করেছে। আমি প্রশাসনের কাছে এর দৃষ্টান্ত মুলক শাস্তি চাই। ভৈরব থানার অফিসার ইচার্জ মো: শাহিন জানান,

গত দুদিন আগে পঞ।চবটি এলাকায় একটি শিশুকে শ্লীলতাহানীর ঘটনার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় থানায় শিশু ও নারী নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। আসামীকে গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।