ভৈরবে করোনার উপসর্গ নিয়ে একজনের মৃত্যু

 জয়নাল আবেদীন রিটন, ভৈরব প্রতিনিধি: ভৈরবে করোনার উপসর্গ নিয়ে জানে আলম (৪০) নামে এক সবজি বিক্রেতার মৃত্যু হয়েছে। সে শহরের চন্ডিবের মোল্লাবাড়ির মনসুর মোল্লার পুত্র বলে জানা গেছে। মারা যাওয়া জানে আলমের দেহ থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে । মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সে নিজ বাড়িতে মারা যায়। জানাযায় মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সে নিজ বাড়িতে থাকা অবস্থায় প্রচন্ড জ্বর ও শ্বাস কষ্ট দেখা দিলে স্থানীয় একটি প্রাইভেট হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন ।

খবর পেয়ে উপজেলা করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ কমিটি সদস্যরা নিহত ব্যাক্তিকে স্বাস্থ্য বিধি মেনে রাতেই দাফন সম্পন্ন করে তার দেহ থেকে নমুনা সংগ্রহ করে । এ বিষয়ে নিহত ব্যাক্তির বড় ভাই মোস্তফা আলম জানান, গত ১৫ দিন আগে তার জ্বর দেখা দিয়েছিল পরে ঔষধ সেবনে সুস্থ হয় । কিন্ত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সে হঠাৎ করে অসুস্থ বোধ করলে আমরা তাকে একটি প্রাইভেট হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেন ।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি লুবনা ফারজানা জানান, নিহত ব্যক্তি জ্বর, শ্বাসকষ্ট সহ করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা গেছে । স্বাস্থ্য বিধি মেনে তাকে দাফন করা হয়েছে । এছাড়া নিহত ব্যাক্তির দেহ থেকে নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য আইইডিসিআরে পাঠানো হয়েছে এর আগে গত ১৫ মে করোনার উপসর্গ নিয়ে অমিয় দাস ( ৬০) নামে মৎস্য ব্যবসায়ী মারা গেছেন । পরে পরীক্ষায় নমুনার রিপোর্টে পজেটিভ ধরা পড়েছে ।