ভৈরবের বাড়িঘর ভাংচুর ও মসজিদের টাকা নিয়ে সংঘর্ষে আহত ৩০ জন

জয়নাল আবেদীন রিটন, ভৈরব প্রতিনিধিঃ কিশোরগঞ্জের ভৈরবের কালিকা প্রসাদের ঝগড়ার চর গ্রামে জুম্মার নামাজের পর আড়াই টার দিকে দুই দল গ্রামবাসী দফায় দফায় সংঘর্ষে লিপ্ত হয় প্রায় ৩ ঘন্টাব্যাপী সংঘর্ষে উভয় পক্ষের ৩০ জন আহত হয় এ সময় দুটি ঘরে অগ্নি সংযোগ সহ৮/১০ ঘরে ভাংচুর ও লুটপাটের অভিযোগ অভিযোগ উঠেছে।

খবর পেয়ে ভৈরব থানা পুলিশ ঘটনা স্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। পরে এলাকাবাসী আহতদের উদ্ধার করে ভৈরব উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে। তাদের মধ্যে ১৫ জন কে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। এই ১৫ জনের মধ্যে ৫ জনের অবস্থা আশংকা জনক বলে জানিয়েছেন কর্তবরত চিকিৎসক।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায় কালিকাপ্রসাদ ঝগড়ার চর গ্রামের ছলিম সরকারের বাড়ীর মসজিদের সংস্কারের জন্য উঠানো ৫০ হাজার টাকা কে কেন্দ্র করে একই এলাকার মুজিবুর মেম্বার ও ফিরোজ মিয়ার মধ্যে বিরোধ চলে আসছে।

এ নিয়ে উভয়পক্ষ ৪/৫ রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। এ নিয়ে মামলা মোকদ্দমা ও চলছে এলাকাবাসী বারবার উদ্যোগ নিয়ে ও ব্যর্থ হয়। আজ জুম্মার নামাজের পর এই টাকা কে কেন্দ্র করে দু-দলে প্রথমে হাতাহাতি পরে ভয়াবহ সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। ৩ঘন্টা ব্যাপী সংঘর্ষে ৩০ জন আহত হয়।

৮/১০ বাড়ীতে ভাংচুর সহ লুটপাট চালানোর অভিযোগ উঠেছে। তা ছাড়া দুটি ঘরে অগ্নি সংযোগের ঘটনা ঘটে। ভৈরব থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ শাহিন বলেন এই এক মাসে এ দুই দল একাধিক সংঘর্ষে লিপ্ত হয়েছে। ভৈরব থানায় উভয় পক্ষের লোকদের নামেই মামলা রয়েছে তারপরও তাদের থামানো যাচ্ছেনা। তারা এ ঝগড়া যাটি না থামালে আমরা কঠোর হতে বাধ্য হবো।