ভুয়া ডাক্তারের ফ্ল্যাটে ‘করোনা রোগীর’ ক্লিনিক

মোঃরাশেদ, চট্টগ্রাম প্রতিনিধিঃ ভুয়া ডাক্তারের ফ্ল্যাটে ‘করোনা রোগীর’ ক্লিনিক!ছিলেন হোমিও চিকিৎসক। পরে ভোল পাল্টে এমবিবিএস ডিগ্রিধারী চিকিৎসক বনে যান তিনি। নিজের নামের পাশে লিখতে শুরু করেন এমডি, এমফিল, পিএইচডিসহ নিউরোলজি ও মেডিসিনের ওপর নানা ডিগ্রির নাম। দেশে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ বাড়তে থাকলে নিজের ফ্ল্যাটের এক রুমে দুই বেডের ক্লিনিক তৈরি করে ‘চিকিৎসা’ দিতে শুরু করেন করোনা উপসর্গ নিয়ে আসা রোগীদেরও।

হাটহাজারীর মেখল এলাকার একটি ভবনে অভিযান চালিয়ে করোনা রোগীর ক্লিনিক খুলে বসা এরকম এক ভুয়া ডাক্তারকে হাতে নাতে ধরেছে উপজেলা প্রশাসন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. রুহুল আমিন অভিযানে নেতৃত্ব দেন। মো. রুহুল আমিন বলেন, মো. সোলাইমান নামের ওই ব্যক্তি ১০-১২ বছর আগে হোমিও চিকিৎসক ছিলেন। ৪-৫ বছর আগে হঠাৎ তিনি নিজেকে এমবিবিএস, এমডি, এমফিল, পিএইচডিসহ চিকিৎসাবিজ্ঞানের নানা ডিগ্রিধারী চিকিৎসক দাবি করে চিকিৎসা দিতে শুরু করেন। ইউএনও বলেন, দেশে করোনার প্রকোপ বাড়তে থাকলে জ্বর, স্বর্দি, শ্বাস কষ্টসহ করোনা রোগের নানা উপসর্গ নিয়ে আসা রোগীদের তার ফ্ল্যাটের এক রুমে তৈরি করা দুই বেডের ক্লিনিকে ভর্তি করিয়ে চিকিৎসা দিতে থাকেন।

অভিযানের সময়ও তার ক্লিনিকে দুইজন রোগী ভর্তি পাই আমরা। মো. রুহুল আমিন বলেন, অভিযানের শুরুতে স্বাস্থ্য বিভাগের লোকজনসহ আমরা ওই চিকিৎসকের ডিগ্রির কাগজপত্র দেখতে চাই। এ সময় তিনি চিকিৎসাবিজ্ঞানের ওপর তার কোনো ডিগ্রি নেই বলে জানান। পরে আমরা ক্লিনিকটি সীলগালা করে দিয়েছি। ভর্তি দুই রোগীকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। বয়স ও করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় মো. সোলাইমানকে কোনো জরিমানা না করে মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।