ভারত মহাসাগরে তেলবাহী জাহাজে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড

শ্রীলঙ্কার কাছাকাছি ভারত মহাসাগরে একটি তেলবাহী জাহাজে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। বিপুল পরিমাণ অপরিশোধিত তেল এবং ডিজেল রয়েছে ওই ট্যাংকারে। ডয়চে ভেলে’র একটি প্রতিবেদনের এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৩ সেপ্টেম্বর) ভারতের পারাদ্বীপে যাওয়ার পথে  শ্রীলঙ্কা বন্দরের কাছাকাছি আসলে হঠাৎ আগুন লেগে যায় জাহাজটিতে। সেখানে শ্রীলঙ্কা এবং ভারতের নৌসেনাদের প্রচেষ্টায় জাহাজটির আগুন আপাতত নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়েছে বলে জানা গেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কুয়েত থেকে নিউ ডায়মন্ড ট্যাংকার নামের একটি জাহাজ ২ লাখ ৭০ হাজার টন অপরিশোধিত তেল এবং ১ হাজার ৭০০ টন ডিজেল নিয়ে রওনা হয়েছিল।

ট্যাংকার জাহাজটিতে ২৩ জন কর্মী ছিলেন, যার মধ্যে ১৮ জন ফিলিপিনো এবং ৫ জন গ্রিক। আগুন নেভাতে গিয়ে দুজন কর্মী আহত হন বলে জানা গেছে। তার মধ্যে একজন এখনও নিখোঁজ। বাকিদের পানামার ফ্ল্যাগ লাগানো একটি জাহাজ প্রাথমিকভাবে উদ্ধার করে।

শ্রীলঙ্কার নৌ বাহিনীর কয়েকটি ছোট ছোট নৌকা জাহাজের সামনে গিয়ে আগুন নেভানোর কাজ শুরু করে। তারা বলেন, আপাতত আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে। তবে এখনও তেল লিক হওয়ার সম্ভাবনা আছে।

শ্রীলঙ্কার নৌসেনা বলেন, যদি তেল লিক হয় তাহলে সেটা মোকাবিলা করার মতো ব্যবস্থা তাদের নেই। ভারত এরমধ্যেই নৌ বাহিনীর একটি জাহাজ পাঠিয়েছে। আরও দু’টি উদ্ধারকারী জাহাজ পাঠানো হয়েছে। যদি তেল লিক হয় তাহলে ভারতীয় নৌ সেনারা সেটি মোকাবিলা করবে বলে জানা গেছে।

এর কিছুদিন আগেই জাপানের একটি ট্যাংকার থেকে তেল লিক করেছিল মরিশাসের কোরাল রিফে। ওই ঘটনায় কয়েক হাজার টন তেল পানিতে মিশে গেলে প্রকৃতির ভয়াবহ ক্ষতি হয়েছিল। শ্রীলঙ্কার নৌ সেনারা জানিয়েছে, ফের যাতে ওই ধরনের ঘটনা না ঘটে, তার দিকে খেয়াল রাখা হচ্ছে।