ভারতের বিশ্বকাপ নিয়ে অনিশ্চয়তা ও শঙ্কার কথা জানাল পাকিস্তান

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ নিয়ে আবারো মুখোমুখি অবস্থানে ভারত ও পাকিস্তান। চলতি বছর ভারতে বসতে চলেছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ।

তার আগে প্রশ্ন, পাকিস্তান কি টুর্নামেন্টে অংশ নিতে পারবে? রাজনৈতিক কারণে দীর্ঘদিন পাকিস্তানের খেলোয়াড়রা ভারতে প্রবেশ করতে পারেন না।

তাই আইসিসি ও ভারতের কাছে লিখিত নিশ্চয়তা চায় পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)।

তবে পাকিস্তানের দাবি, আয়োজক হিসেবে ভারত এখনো নিশ্চিত নয়।

আর সে কারণেই বিশ্বকাপের ৭ মাস আগে এসেও ভারতের বিশ্বকাপ নিয়ে অনিশ্চয়তা ও শঙ্কার কথা জানাল পাকিস্তান।

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) চেয়ারম্যান এহসান মানি সংবাদমাধ্যমকে বলেন,

‘টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ভারত থেকে অন্য কোথাও স্থানান্তর করতে আমরা আইসিসির কাছে অনুরোধ করেছি।

যদি মেগা ইভেন্ট নিয়ে আমাদের উদ্বেগের সমাধান না হয় তাহলে আইসিসিকে এ আসর চলাকালীন ভারতে পাকিস্তানি প্রতিনিধিদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে বলেছি।’

মানি আরও জানান, বিশ্বকাপের জন্য পাকিস্তানের যারা ভারতে যাবেন তাদের ভিসার লিখিত নিশ্চয়তা দাবি করেছে পাকিস্তান।

তিনি বলেন, ‘যদি এটি সম্ভব না হয় তবে টুর্নামেন্টটি অন্য কোথাও পরিচালনা করা দরকার। আমাদের ক্রিকেটার, কর্মকর্তা এবং সাংবাদিকদের জন্য আমাদের ভিসা প্রয়োজন।

আমরা এই বিষয়ে ভারতের কাছ থেকে লিখিত নিশ্চয়তা চেয়েছি। এই উদ্বেগগুলো পূরণ না করা হলে সংযুক্ত আরব আমিরাতেও ইভেন্টটি অনুষ্ঠিত হতে পারে।

আমরা এখন আইসিসির প্রতিক্রিয়ার জন্য অপেক্ষা করছি।’

ভারতের মাটিতে খেলা হলে নিরাপত্তা নিয়ে চাপে থাকবেন পাকিস্তানি খেলোয়াড়, কর্মকর্তা, সাংবাদিক ও সমর্থকরা।

তাই তাদের নিয়ে নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে আলাদা করে ভাবতেই হচ্ছে পিসিবিকে। এছাড়া ভিসা ইস্যুতো রয়েছেই।

ভারত ও পাকিস্তানের দ্বিপাক্ষিক লড়াই বন্ধ অনেক দিন ধরে। এশিয়া কাপ বা বিশ্বকাপের মত আসর হলে দুই দলকে পরস্পরের মুখোমুখি হতে দেখা যায়।

তবে বড় আসরগুলো যখন এই দুই দেশেই আয়োজনের কথা ওঠে, তখন বেঁকে বসে অপর পক্ষ।

অক্টোবরে সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটের বিশ্ব ক্রিকেটের এই আসর বসার কথা রয়েছে।

এবার অংশ নিচ্ছে ১৬টি দেশ। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সপ্তম আসর শেষ হবে ১৪ নভেম্বর।