ভাঙ্গা ব্রিজে ঝুকি নিয়ে চলাচল ভোগান্তিতে কয়েক গ্রামের মানুষ

ওমর আলী বাবু, জয়পুরহাট প্রতিনিধিঃ জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার মোহাম্মদপুর বেড়াখাই-পাগলাবাজার পাকা রাস্তার নিকরদিঘী এলাকার ব্রিজটি সর্ম্পূন ভেঁঙ্গে যাওয়াই বিপাকে পরেছে কয়েক গ্রামের জনসাধারন। ব্রিজটি দীর্ঘদিন ধরে অর্ধেক অংশ ভাঁঙ্গা ছিল তখন মাটি দিয়ে ভরাট করে শুধু সাইকেল, মটরসাইকেল, ভ্যান ও ইজিবাইক পারাপার করত। মাটি দিয়ে ব্রিজটি ভরাট করায় বর্ষার পানি যাওয়ার পথ বন্ধ হয়ে যায় এবং মাঠে অধিক পানি জমে থাকায় কৃষকদের চাষাবাদে সমস্যা হয়।

এমতবস্থায় এলাকার লোক নিজ উদ্দোগে স্বেচ্ছাশ্রমে গাছের গুড়ি ও বাঁশ দিয়ে সাঁকো তৈরী করে। এ সাঁকোর উপর দিয়েই জীবনের ঝুঁকি নিয়েই পারাপার করচ্ছেন সবাই।

সাঁকো দিয়ে পায়ে হেটে, সাইকেল, মটরসাইকেল, ভ্যান ও ইজিবাইক পারাপার করতে পারলেও অন্য যানবাহন চলাচল করতে পারে না। এজন্য ট্রাক-বাস ও পিকআপ সহ ভারি যানবাহন গুলো অনেক দূর দিয়ে বিকল্প রাস্তায় চলাচল করতে হচ্ছে। এতে করে সময় যেমন বেশী লাগছে অর্থও ব্যয় বেশী হচ্ছে।

পাঁচবিবি শহর থেকে পাশের উপজেলা গোবিন্দগঞ্জ যাওয়ার সহজ রাস্তা হলেও ব্রিজটির এঅবস্থার জন্য ভারি যানবাহন এপথে চলাচল করতে পারেনা। নন্দীগ্রাম পুলিশ ফাঁড়ি, বে-সরকারি ২টি এজেন্ট ব্যাংকের শাখা, ২টি ইউনিয়নের জনসাধারন ও কয়েকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা এপথেই চলাচল করে। অতিদ্রুত ব্রিজটি নতুন করে নির্মাণের জন্য যথাযথ কর্তৃপক্ষের প্রতি জোড় দাবী করেন এলাকাবাসী।

উপজেলা প্রকৌশলী আব্দুল কাইয়ুম বলেন, ওই ব্রিজ সহ উপজেলার এমন মোট ৩টি ব্রিজের জন্য উপরে অর্থ বরাদ্দ চেয়ে লিখিত ভাবে জানানো হয়েছে। বরাদ্দ এলেই কাজ শুরু করা হবে বলেও তিনি জানায়।