ব্যাপক বিক্ষোভের মধ্যেই ভারতের বিতর্কিত নাগরিকত্ব বিলে রাষ্ট্রপতির সই

ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের ব্যাপক বিক্ষোভের মধ্যেই বিতর্কিত নাগরিকত্ব সংশোধন বিলে অনুমোদন দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। আর এতে করে আর কোন বাধাই রইলো না বিভিন্ন দেশ  থেকে নিপীড়নের মুখে ভারতে আশ্রয় নেয়া হিন্দু, শিখ, জৈন, খ্রিষ্টান, বৌদ্ধ ও পার্সীদের নাগরিকত্ব পাওয়ার পথে

এর আগে পার্লামেন্টের দুই কক্ষের অনুমোদনের পর বৃহস্পতিবার (১২ ডিসেম্বর) রাতে ওই বিলে সম্মতি দেন তিনি। এর মাধ্যমে বিলটি আইনে পরিণত হয়েছে।

ভারতীয় সম্প্রচারমাধ্যম এনডিটিভি জানিয়েছে, রাষ্ট্রপতির সম্মতির পর বৃহস্পতিবার রাষ্ট্রীয় গেজেট প্রকাশের মধ্য দিয়ে আইনটি কার্যকর হয়েছে।

এদিকে, এখনও উত্তপ্ত আসাম-ত্রিপুরা এবং মনিপুর। বৃহস্পতিবার আসামের মুখ্যমন্ত্রীসহ হামলা হয়েছে বিজেপি ও আসাম গণপরিষদ নেতাদের বাড়িতে। আটক করা হয়েছে কয়েক ডজনকে।

আসামের গৌহাটিতে কারফিউ ভেঙে বিক্ষোভকালে পুলিশের গুলিতে প্রাণ গেছে অন্তত ৩ জনের।

সহিংসতায় ঘটনায় গোহাটিতে বাংলাদেশ হাইকমিশনের নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।

গত সোমবার মধ্যরাতে ৩১১-৮০ ভোটে লোকসভার অনুমোদন পায় বিতর্কিত এই বিলটি। পরে বুধবার পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষ রাজ্যসভারও অনুমোদন পায়। বিরোধীদলগুলো বিলটিকে ‘মুসলিমবিরোধী’ আখ্যা দিয়ে প্রতিবাদ করলেও দেশটির উত্তর-পূর্বাঞ্চল ভিন্ন দাবিতে উত্তাল। আসাম-ত্রিপুরা, মেঘালয়ে শরণার্থীদের অবৈধ অভিবাসীর স্বীকৃতি বাতিল ও এই অঞ্চলকে সিএবি আওতামুক্ত করার দাবিতে বিক্ষোভ করছে তারা।