ব্যাংক নোট থেকে করোনা ভাইরাস ছড়াতে পারে: ডব্লিওএইচও

ব্যাংক নোট থেকে করোনা ভাইরাস ছড়াতে পারে বলে সতর্ক করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিওএইচও)। গত (সোমবার) দিবাগত রাতে জাতিসংঘের বিশেষায়িত সংস্থাটির পক্ষ থেকে এই সতর্কবার্তা দেওয়া হয়।

জনগণকে ব্যাংক নোটের পরিবর্তে অন্য ভাবে লেনদেনের পরামর্শ দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা । একইসাথে, লেনদেনের ক্ষেত্রে কার্ড পেমেন্ট, বারকোড স্ক্যানিং ও মোবাইল পেমেন্টের মতো প্রযুক্তি ব্যবহারের পরামর্শ দিয়েছে ডব্লিওএইচও। মনে করা হচ্ছে ব্যাংক নোটের মাধ্যমে করোনাভাইরাস ছড়াচ্ছে। কোভিড ১৯ ভাইরাসের জীবাণু কয়েকদিন জীবিত থাকতে পারে ব্যাংক নোটের ওপর এমনটাই বলেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

নোট লেনদের পর হাত ভাল করে পরিষ্কার করার কথাও বলেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। যুক্তরাজ্যের কেন্দ্রীয় ব্যাংক ইতোমধ্যে ব্যাংক নোট ব্যবহারের পর হাত পরিষ্কার করার কথা বলেছে।

গত মাসে চীন এবং কোরিয়ার ব্যাংক ভাইরাস নির্জীব ভিন্ন ব্যাংক নোট চালু করেছে। ভাইরাস নির্জীব করতে অতি বেগুনি রশ্মি এবং উচ্চ তাপমাত্রা ব্যবহার করে ১৪ দিন পর্যন্ত ব্যাংক নোট স্টোর করে রাখা হয় পুণমূদ্রণের আগ পর্যন্ত এমনটাই জানিয়েছে চীনের কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

তবে যুক্তরাজ্যের একটি ব্যাংক সূত্র বলেছে এমনটি করার পরিকল্পনা আপাতত যুক্তরাজ্যে নেই। যুক্তরাজ্যের এক ব্যাংক মুখপাত্র টেলিগ্রাফকে বলেছেন,”যেকোনো জিনিসের উপরিভাগ যা বহু লোকের সংস্পর্শে আসে এমন নোট সংক্রামণ অথবা ভাইরাস পরিবহন করতে পারে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে ” আমরা জানি যে টাকা বারংবার হাত বদল হওয়ার কারণে এটি ব্যাকটেরিয়া এবং ভাইরাস ধারন করে। আমরা জনগণকে পরামর্শ দিচ্ছি তারা যেন ব্যাংক নোট ব্যবহারের পর হাত ভাল মতো ধুয়ে ফেলে এবং হাত ধোয়ার আগে তারা যেন তাদের মুখ না স্পর্শ করে।

এটা এখনও পরিষ্কার না যে করোনা ভাইরাস কিভাবে এবং কত সময় মানুষের শরীরের বাইরে অবস্থান করে । সেভারি একুইট রেসপাইরেটরি সিনড্রোম এবং মিডল ইস্ট রেসপাইরেটরি সিনড্রোম এই মাসে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে তারা বলেছে, মানুষের শরীরে করোনাভাইরাস সংক্রামক এবং যা নয় দিন পর্যন্ত রুম তাপমাত্রায় সংক্রমিত হতে পারে ।