বেলকুচিতে বঙ্গবন্ধুর নামে কোরআন পাঠ করায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কটুক্তি

পারভেজ আলী, বেলকুচি প্রতিনিধিঃ সিরাজগঞ্জের বেলকুচিতে বাবার অসিয়ত মোতাবেক জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের নামে কোরআন পাঠ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কটুক্তির শিকার হয়েছে মাওলানা আব্দুল্লাহ আল মামুন।

এবিষয়ে মাওলানা আব্দুল্লাহ আল মামুন বাদী হয়ে বেলকুচি থানায় গতকাল (শনিবার) কটুক্তিকারী ক্ষিদ্রমাটিয়া গ্রামের মৃত মবিন ভূইয়া ছেলে রাতুল ভূইয়ার নামে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। অভিযোগ সূত্রে জানাযায়, মাওলানা আব্দুল্লাহ আল মামুন তার বাবার অসিয়ত মোতাবেক প্রত্যাহ সকাল-সন্ধ্যা জাতির পিতা শেখ মুজিবর রহমানের রুহের মাগফিরাত কামনার জন্য কোরআন পাঠ করতেন।

এবিষয়টি স্থানীয় সংবাদিক মহলে জানাজানি হলে গত ১৫ মার্চ “একযুগ ধরে বঙ্গবন্ধুর নামে কোরআন পাঠ করছেন বেলকুচির মাওলানা” এই শিরোনামে দৈনিক কলম সৈনিক, যুগের কথা,অনলাইন পোর্টাল সিরাজগঞ্জ কন্ঠ সহ বেশ কয়েকটি জাতীয় পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হয়।

যার প্রেক্ষিতে রাতুল ভূইয়া মাওলা আব্দুল্লাহ আল মামুনকে সমাজে হেয় করার জন্য সংবাদে অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছে। পাশাপাশি তাকে জামায়েত ইসলামে সদস্য হিসাবে আখ্যায়িত। অভিযোগ সূত্রে আরও জানা গেছে রাতুল ভূইয়া সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কটুক্তি সম্পর্কে প্রতিবাদ করতে গেলে আব্দুল্লাহ আল মামুনকে প্রাণনাসের হুমকি প্রদান করেছে।

এবিষয়ে মাওলানা আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, আমার বাবার অসিয়ত পালনের জন্য জাতির জনকের জন্য কোনআন পাঠ করে আমি রাতুল ভূইয়ার কাছে অপমানিত হয়েছি। দলকে ভালবেসে বাবার অসিয়ত পালন করছি আর সেই কারণে সামাজিক ভাবে হেয় হতে হচ্ছে এমনকি এসবের প্রতিবাদ করতে গিয়ে আমাকে প্রাণ নাসের হুমকি নিয়ে চলতে হচ্ছে।

আমি এই বিষয়ে জেলা আওয়ামীলীগের নেত্রীবৃন্দ সহ দেশরত্ন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করছি। যাতে আর কোউ যেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের বিষয় নিয়ে কটুক্তি করার দুঃসাহস না দেখাতে পারে। বেলকুচি থানা অফিসার ইনচার্জ বাহা উদ্দিন ফারুকী প্রতিবেদককে জানান,

আমরা রাতুল ভূইয়ার নামে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কটুক্তি করার বিষয়ে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।