বেলকুচিতে পূর্বে শত্রুতার জের ধরে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত ৪

পারভেজ আলী বেলকুচি, (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জের বেলকুচি উপজেলায় পৌর এলাকাস্থ চন্দনগাঁতী ব্যপারী পাড়া গ্রামে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে নির্মমভাবে ধরালো দা দিয়ে কুপিয়ে আহত করেছেন। এতে অন্তত ৪ জন আহত হয়েছে। গুরতর আহত কাউসার (২৭), আব্দুল মোতালেব (২৬), মাসুদ (৩৫) বেলকুচি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালে চিকিৎসাধিন রয়েছে।

বুধবার (২৭ মে) রাতে উপজেলার পৌর এলাকার চন্দনগাঁতী ব্যপারী পাড়া হামলার ঘটনাটি ঘটেছে। প্রতিবেশী ফজল আলীর ছেলে আলহাজ্ব আলীর সঙ্গে শান্তাহারের ছেলে আব্দুল হাশেমের কিছু দিন আগে কথা কাটাকাটি হয়। এরই জের ধরে রাতে আলহাজ্ব আলীসহ তার তিন ভাই আলমামুন, আল-আমিন, আলীম, জেলহজের ছেলে বক্কার, শুকুরের ছেলে হাকিম একত্রিত হয়ে আব্দুল হাশেমকে একটি ঘরে আটকে রেখে মারধর করে।

এমন খবর শোনার পর তার ভাইসহ পরিবারের লোকজন আটকে রাখার বিষয়টি শুনতে পায় হাশেমকে একটি ঘরে আটকে রেখে মারধর করেছে। এমন খবর শোনার পর তার ভাইসহ পরিবারের লোকজন আটকে রাখার বিষয়টি শুনতে গেলে ফজলের ছেলে আলহাজ্বসহ তার সহযোগী লোকজন দেশীয় অস্ত্র দা, লাঠি, শাবল নিয়ে প্রতিপক্ষের লোকজনের উপর অতর্কিতভাবে হামলা করে এবং বেধড়ক মারপিট শুরু করে।

এতে কাউসার (২৭), আব্দুল মোতালেব (২৬), মাসুদ (৩৫), জখমসহ গুরুত্বর আহত হয়। তারা বাঁচার জন্য অর্তচিৎকার করলে প্রতিবেশিসহ অন্যান্যরা ঘটনা স্থলে ছুটে এসে আহতদের উদ্ধার করে রাতেই বেলকুচি উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্স এর ভর্তি করান। কাইসার জানায়, কিছু দিন আগে প্রতিবেশী ফজল আলীর ছেলে আলহাজ্বের সঙ্গে আমার চাচাত ভাই আব্দুল হাশেমের সাথে কথা কাটাকাঠি হয়।

এরই জের ধরে রাতের আমার ভাইকে একটি ঘরে আটকিয়ে রেখে মারপিট করে। আমারা বিষয়টি জানার পর শুনতে গেলে আমাদের উপর মামলা চালায়। এতে আমিসহ ৪ জন আহত হই। এ ঘটনায় বেলকুচি থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন বলে জানান। বেলকুচিতে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক বলেন, রোগিদের মাথায় ও শরীরে বিভিন্ন অংশ কেটে ও ফেটে গেছে।

তাদেরকে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা প্রদান করা হচ্ছে। আশা করছি তারা ঠিকমত ঔষুধ সেবন করলে দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠবে। বেলকুচি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আনোয়ারুল ইসলাম জানান, মারপিটের ঘটনায় আমরা লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।