বিয়ের পর ২৪ ঘণ্টা কাটতে না–কাটতেই অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে দীপঙ্কর দে

কলকাতার অভিনেতা দীপঙ্কর দে (৭৫) ও দোলন রায় (৪৯) বৃহস্পতিবার বিয়ে করেছেন। এ দিকে বিয়ের পর ২৪ ঘণ্টা কাটতে না–কাটতেই অসুস্থ হয়ে পড়েছেন দীপঙ্কর দে। হাসপাতালের বিছানা পর্যন্ত যেতে হলো তাঁকে। শুক্রবার গুরুতর অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন ৭৫ বছর বয়সী এই অভিনেতা। ১৭ জানুয়ারি, শুক্রবার সন্ধ্যায় তাঁকে ভর্তি করা হয় কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে।

 

জানা গেছে দীপঙ্কর দের শ্বাসকষ্টজনিত অসুস্থতা চলছিল বেশ কয়েক দিন ধরে। দীপঙ্করের নববিবাহিতা স্ত্রী দোলন ভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, বিয়ের অনুষ্ঠানের দিন সকাল থেকেই দীপঙ্কর দের স্বাস্থ্য খুব একটা ভালো ছিল না। তবে পূর্বনির্ধারিত বিয়ের অনুষ্ঠানটি বাতিল করতে চাননি দীপঙ্কর দে। ঘনিষ্ঠ কয়েকজন বন্ধুর উপস্থিতিতে রেজিস্ট্রি করে বিয়ের সংক্ষিপ্ত অনুষ্ঠান সারা হয়েছিল। ঘনিষ্ঠ কয়েকজনই আমন্ত্রিত ছিলেন সেই বিয়েতে।
ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো বলছে, কলকাতার বিনোদন জগতের অধিকাংশ মানুষ এই বিয়ের কথা জানতেন না। অনুষ্ঠানে হাজির ছিলেন নাট্যকার ও অভিনেতা ব্রাত্য বসু, সৌমিত্র মিত্র, ধ্রুব কুণ্ড, শীর্ষ সেন প্রমুখ।

 

শুক্রবার সকাল থেকেই বেশি শ্বাসকষ্ট হয় দীপঙ্কর দের। চিকিৎসকের পরামর্শেই ১৭ জানুয়ারি সন্ধ্যায় একটি বেসরকারি হাসপাতালের ইনটেনসিভ কার্ডিয়াক কেয়ার ইউনিটে ভর্তি করা হয় তাঁকে। ঘনিষ্ঠ সূত্রের খবর, দীপঙ্কর দে আপাতত পর্যবেক্ষণে রয়েছেন এবং তাঁর স্বাস্থ্যসংক্রান্ত একাধিক পরীক্ষা-নিরীক্ষার পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসকেরা।

 


জানা গেছে, বাংলা ছবি ও বাংলা ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা দীপঙ্কর দে বেশ কয়েক মাস হলো ধারাবাহিকের নিয়মিত অভিনয় থেকে বিরতি নিয়েছেন। তবে তাঁর স্ত্রী দোলন রায় টেলিভিশনের ব্যস্ততম অভিনেত্রীদের একজন। বর্তমানে জি বাংলার ‘আলোছায়া’ ধারাবাহিকে নায়কের মায়ের চরিত্রে এসেছেন তিনি। অভিনয় করেছেন বেশ কিছু জনপ্রিয় সিরিয়ালে।