বিশ্ববাসীর জন্য শান্তি কামনা করেন পোপ ফ্রান্সিস

 নানা আনুষ্ঠানিকতায় উদযাপিত হচ্ছে খ্রিস্টানদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব বড়দিন। এ উপলক্ষে ভ্যাটিকান সিটিতে আয়োজিত অনুষ্ঠানে পোপ ফ্রান্সিস বিশ্ববাসীর জন্য শান্তি কামনা করেন।

জেরুজালেমের বেথেলহেমের একটি গোশালায় জন্ম নেন যিশু খ্রিস্ট। সেই পূণ্যভূমিতে বড়দিনের আয়োজন তাই একটু আলাদা। বড়দিনের আনুষ্ঠানিকতায় অংশ নেন ফিলিস্তিনি প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসও। বিশ্ববাসীর মঙ্গল কামনায় অনুষ্ঠিত হয় বিশেষ প্রার্থনা।

উৎসব উপলক্ষে বর্ণিল আলোয় সাজানো হয়েছে পুরো ভ্যাটিকান সিটি। উৎসবে অংশ নেন খ্রিস্টানদের ধর্মীয় নেতা পোপ ফ্রান্সিস। বিশেষ প্রার্থনা শেষে দেয়া বক্তব্যে সারা বিশ্বে শান্তির কামনা করেন তিনি।

তিনি আরও বলেন, সৃষ্টিকর্তা আমাদের সঙ্গে আছেন। নানা খারাপ কাজ আর পাপের পরও, তিনি আমাদের ভালোবেসে যাচ্ছেন। বড়দিনের এটায় সবচেয়ে বড় উপহার।

বড়দিন উপলক্ষে ব্রিটিশ রাজপ্রাসাদে ছিল জমকালো আয়োজন। রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথসহ রাজ পরিবারের সদস্যরা এবং প্রশাসনের শীর্ষ কর্মকর্তরা এতে অংশ নেন। পরে দেয়া বাণীতে বড়দিনের শুভেচ্ছা জানান রানী।
বর্ণিল আয়োজনে পেরুতে উদযাপিত হচ্ছে বড়দিন। জমকালো আলোকসজ্জায় রাঙিয়ে তোলা হয়েছে চারদিক। এছাড়াও তুরস্কে আয়োজন করা হয়েছে বড়দিনের নানা অনুষ্ঠানের।