হবিগঞ্জের লাখাইয়ে ওএমএস সাড়ে ৩ টন চাল আত্মসাতে এক ডিলারকে ৬ মাস কারাদণ্ড

 সুশীল চন্দ্র দাস, হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি: হবিগঞ্জের লাখাই উপজেলায় অস্বচ্ছলদের জন্য খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির (ওএমএস) সাড়ে ৩ টন চাল আত্মসাতের দায়ে উজ্জ্বল আহমেদ নামে এক ডিলারকে ৬ মাস কারাদণ্ড ও তার ডিলারশিপ বাতিল করা হয়েছে।
সোমবার (১৮ মে) দুপুরে হবিগঞ্জ জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাসুদ রানা এক অভিযানে এ দণ্ডাদেশ দেন। উজ্জ্বল উপজেলার ফুলবাড়িয়া এলাকার ওএমএস ডিলার ছিলেন। তিনি জিরুন্ডা গ্রামের আব্দুল মজিদের ছেলে। জানা গেছে, খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির আওতায় কার্ডধারীরা বছরে ৫ মাস ৩০ কেজি করে ১০ টাকা দরের চাল পেয়ে থাকেন। করোনা ভাইরাস পরিস্থিতিতে নিয়মিত বিতরণের বাইরেও অতিরিক্ত সুবিধা হিসেবে তা বিতরণ করা হচ্ছিল।
সেই চালের ১৪ টন মজুদ থাকার কথা লাখাইয়ের ফুলবাড়িয়া এলাকার ডিলার উজ্জ্বলের কাছে। কিন্তু সেখান থেকে তিনি সাড়ে ৩ টন চাল আত্মসাৎ করেন। ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে এ অনিয়মের সত্যতা পেলে তাকে ৬ মাসের বিনশ্রাম কারাদণ্ড দেওয়া হয়। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাসুদ রানা বলেন উল্লিখিত অভিযোগের সত্যতা মিলেছে। যে কারণে ভোক্তা অধিকার আইন ২০০৯ এর ৪৫ ধারায় তাকে ৬ মাস বিনাশ্রম কারাদন্ডের পাশাপাশি ডিলারশিপও বাতিল করা হয়েছে।
অভিযানের পরপরই উজ্জ্বলকে কারাগারে পাঠানো হয়। জেলা খাদ্য কর্মকর্তা মোহাম্মদ আব্দুস সালাম বলেন, অনিয়মের প্রমাণ পাওয়ায় বর্তমান ব্যক্তির ডিলারশিপ বাতিল হয়েছে। শিগগিরই সব প্রক্রিয়া শেষে নতুন আরেকজন ডিলার নিযুক্ত করা হবে।