বারহাট্টায় মাদ্রাসার জমি সংক্রান্ত বিরোধিতায় মারাত্মক জখম সেই ব্যাক্তি মারা গেছেন : তিন আসামীকে গ্রেফতার

 মামুন কৌশিক বারহাট্টা প্রতিনিধি : নেত্রকোণার বারহাট্টা উপজেলার মাদ্রাসায় জমি বিক্রি নিয়ে বিরোধিতায় মারাত্মক জখম হওয়া গরুদাস চন্দ্র বিশ্ব শর্মা (৫৫) মারা গেছেন আজ। তার পরিবার সূত্রে জানা যায় যে, আজকে অানুমানিক সকাল সাড়ে দশটার দিকে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসারত অবস্থায় মারা যান তিনি।
এদিকে আজ সকালে গরুদাসচন্দ্রের উপর হামলাকারী তিন আসামী হাবিব মিয়া (৫০), বারেক মিয়া (৪০) ও মো : সজিব মিয়াকে গ্রেফতার করেছে বারহাট্টা থানা পুলিশ। উল্লেখ্য যে, গরুদাস চন্দ্রের বাবা মৃত্যুর পূর্বে হরিয়াতলা মাদ্রাসায় ১৭ শতাংশ জমি বিক্রি করে যান।কিন্তুু ভুলবশত ১ নং আসামী হাবিব মিয়ার বাবা মৃত হেকমত আলীর নামে সেই জমি রেকর্ড হয়ে যায়।মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ সেই জমির জন্য বিজ্ঞ আদালতে আসামী হাবিব মিয়ার বাবার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।সেখানে ১ নং সাক্ষী হিসেবে সাক্ষ্য দেন নিহত গরুদাস চন্দ্র বিশ্বশর্মা।
সেই বিরোধিতা থেকে গত ৩/৫/২০২০ তারিখে গরুদাস চন্দ্র বিশ্বশর্মাকে চার আসামী কুপিয়ে ও পিটিয়ে মারাত্মক জখম করে। গত ৭/৫/২০২০ তারিখে নিহত গরুদাসচন্দ্রের ভাই মঙ্গল চন্দ্র বিশ্ব শর্মা বাদী হয়ে চার হামলাকারী ১/হাবিব মিয়া (৫০) ২/মতি মিয়া (৩৫) ৩/মো: বারেক মিয়া (৪০) ৪/ মো: সজিব মিয়ার (২০) বিরুদ্ধে বারহাট্টা থানায় মামলা দায়ের করেন।পরিবারের সবাই রোগীকে নিয়ে চিকিৎসায় ব্যাস্ত থাকায় মামলা দায়ের করতে একটু বিলম্ব হয়েছে বলে জানা যায়।মামলার বাদী মঙ্গল চন্দ্র বিশ্বশর্মা জানান যে, আমার ভাইকে ত হারিয়েছি এখন আমি সকল আসামীদের উপযুক্ত বিচার চাই এবং দ্রুত যেন ২ নং আসামী মতি মিয়াকে গ্রেফতার করা হয়।