বারহাট্টায় বঙ্গবন্ধু হত্যার প্রতিবাদ কারী সুলতান আহমেদ নূরী’র ১৯ তম মৃত্যু বার্ষিকী পালন

মামুন কৌশিক, বারহাট্টা প্রতিনিধিঃ নেত্রকোণার বারহাট্টা উপজেলায় বীর মুক্তিযোদ্ধা মরহুম সুলতান আহমেদ নূরীর ১৯ তম মৃত্যু বার্ষিকী পালন করা হয়েছে। সুলতান আহমেদ নূরী স্মৃতি পরিষদের উদ্দ্যোগে যথাযোগ্য মর্যাদায় এই মহান নেতার মৃত্যু বার্ষিকী পালিত হয়।

সুভাষ চক্রবর্তী উপস্থাপনায় ও হাবিবুর রহমান বাবুলের সভাপতিত্বে প্রথমেই দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়, বারহাট্টা উপজেলার বিভিন্ন মসজিদের উলামায়ে কেরাম ও সাধারণ জনগন দোয়ায় অংশ গ্রহণ করেন, দোয়ার পর আলোচনা সভা শুরু হয়, আলোচনায় উপস্থিত ছিলেন নেত্রকোণা জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি গোলাম রসুল তালুকদার, বারহাট্টা উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান খায়রুল কবীর খোকন সহ সর্বস্থরের রাজনৈতিক ব্যাক্তিবর্গ। শেষে সবার মধ্যে তবারক বিতরণ করা হয়।

সুলতান আহমেদ নুরী নেত্রকোণা জেলার বারহাট্টা উপজেলার কৈলাটি গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন।ছোটবেলা থেকেই বঙ্গবন্ধুর প্রতি উনার ছিল অকৃত্রিম ভালোবাসা।ছাত্র থাকা অবস্থায় তিনি বারহাট্টা থানা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন।১৯৭১ সালে মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন এবং কোম্পানি কমান্ডারের দায়িত্বে ছিলেন।১৯৭৫ সালে ১৫ই আগস্টে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্বপরিপারে হত্যা করা হলে তখন তিনি ওয়াদা করে ছিলেন যে মাটিতে বঙ্গবন্ধুর রক্ত ঝরেছে, সে মাটিতে খুনীদের ফাঁসির রায় কার্যকর না হওয়া পর্যন্ত পায়ে জুতা পরিধান করবেন না।

দীর্ঘ তেইশ বছর জুতা পরিধান না করে কাটিয়েছেন তিনি।১৯৯৬ সালে বঙ্গবন্ধুর কন্যা মাননীয় প্রধান মন্ত্রী নির্বাচনে জয়লাভ করলে বঙ্গবন্ধুর খুনীদের ফাঁসির রায় কার্যকর করেন এবং পরবর্তী সময়ে উনাকে গনভবনে ডেকে এনে জুতা পরার নির্দেশ দেন।

২০০১ সালে অক্টোবর মাসে নৌকা পরাজিত হলে উনি নভেম্বরের ৯ তারিখ স্টোক করে মৃত্যু বরণ করেন।মৃত্যুকালে তিনি বারহাট্টা থানা আওয়ামী লীগের সভাপতির দায়িত্বে ছিলেন।