বারহাট্টায় কৃষকদের প্রায় ভুলতে বসা সরিষা চাষ আবার শুরু করালেন কৃষি কর্মকর্তা

মামুন কৌশিক, বারহাট্টা প্রতিনিধি: একটা সময় ছিল যখন বাংলাদেশের প্রায় অধিকাংশ কৃষক সরিষা চাষ করতেন। গ্রামে গেলেই দেখা যেত একরের পর একর জমিতে সরিষা চাষ করা হয়েছে। জমির সরিষা ফুল হাওয়ায় দুলে উন্মাদ করে দিত মধু নিতে আসা মৌমাছিদের। কিন্তু সেই দিন ক্রমেই হারিয়ে যাচ্ছে।

জলবায়ু পরিবর্তনের জন্য ক্রমেই হারিয়ে যাচ্ছে সরিষা চাষ। অনেকেই বোরো ধান রোপণে দেরি হয়ে যাবে এমন চিন্তায় সরিষা চাষ বাদ দিয়েছেন। কিন্তু বারহাট্টা উপজেলায় উন্নত জাতের সরিষা বীজ দিয়ে কৃষকদের আবার সরিষা চাষে আগ্রহী করছেন বারহাট্টা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোহাইমিনুর রাশীদ।

এ বিষয়ে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো: হাইমিনুর রাশীদ বলেন যে, শুরুটা গত বছরের জুনের দিকে। নির্ধারিত একটা মাঠ ও কৃষক নির্বাচন করে কৃষিমন্ত্রী মহোদয়ের ডাকে সাড়া দিয়ে পরিকল্পনা করেছিলাম আমনে আগাম জাত আবাদ করে সরিষা করাব। অতঃপর ব্রি ধান ৭১ দিলাম, পরবর্তীতে সরিষা করে বোরোতে ব্রি ধান ১৪ করালাম। বারহাট্টায় প্রথমবারের মতো জমিটা তিনবার আবাদ হলো। তিনটি ফসলই দারুণ হয়েছে।

সরিষা করার জন্য আশেপাশের কৃষকদের মটিভেট করেছি, করে নাই, বলল বোরো দেরি হয়ে যাবে। অথচ আজ তারাই পিছিয়ে আছে। দুইদিন পর ব্রি ধান ১৪ কাটবে। আগামীতে অনেকেই আমনে আগাম জাত করে সরিষার আবাদ করবে। মনটা আজ খুশিতে ভরপুর।